তজুমদ্দিনে ছাত্রদলের কমিটি নিয়ে উত্তেজনা মেজর হাফিজের কুশপুত্তলিকা দাহ

 ফারহান-উর-রহমান সময়, ভোলা তজুমদ্দীন প্রতিনিধি: ভোলার তজুমদ্দিনে উপজেলা ও কলেজ ছাত্রদলের নব-গঠিত আহ্বায়ক কমিটি নিয়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ছে। মেজর হাফিজের পকেট কমিটি দাবী করে সংবাদ সম্মেলনে তা প্রত্যাখান করে ওই নেতার কুশ দাহ করে ছাত্রদলের নেতাকর্মিরা। শনিবার (২২ আগষ্ট) সকাল ১০ টায় আহাম্মদ ভবনে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নব-গঠিত উপজেলা কমিটির প্রথম যুগ্ম আহ্বায়ক জুলফিকার হাওলাদার ও কলেজ ছাত্রদলের সদস্য সচিব মমিনুল ইসলাম শাকিল। এরপর বিক্ষুব্ধ নেতা কর্মিরা দলীয় কার্যালয় থেকে বেরিয়ে প্রধান সড়কে সমাবেশ করতে চাইলে পুলিশ বাঁধা দেয়।

পরে তারা আহাম্মদ ভবনের দলীয় কার্যালয়ের সামনে পুলিশের উপস্থিতিতে সংস্কারপন্থী নেতা ও এ এলাকার সাবেক সংসদ সদস্য মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিনের কুশপুত্তলিকা দাহ করেন। এ সময় শতাধিক বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মি মেজর হাফিজকে এলাকায় অবাঞ্চিত ঘোষনা করে তাকে দল থেকে বহিস্কারের দাবীতে স্লোগান দেয়। গত ১৮ আগষ্ট উপজেলা ছাত্রদল ও সরকারী কলেজ ছাত্রদলের কমিটি ঘোষনা করেন জেলা ছাত্রদল।

এ নিয়ে বেশ কিছুদিন স্থানীয় ছাত্রদলের নেতাকর্মিদের মধ্যে শুরু হয় তুমুল বিতর্ক। পরে নব-গঠিত উপজেলা ও কলেজ শাখা কমিটির শতাধিক নেতাকর্মি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন তারা। সংবাদ সম্মেলনে নব-গঠিত উপজেলা কমিটির প্রথম যুগ্ম আহ্বায়ক জুলফিকার হাওলাদার ও কলেজ কমিটির সদস্য সচিব মমিনুল ইসলাম শাকিল লিখিত বক্তব্যে দাবী করেন, উপজেলা কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক শাহিল আমল অভি, শাহরিয়ার হোসেন সেজান, সদস্য আল-আমিন ভূইয়া এবং কলেজ শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক জয়নাল আবদীন সজিব ছাত্রলীগের সক্রিয় কর্মি। এছাড়া উপজেলা কমিটির শরিফ হাওলাদার ব্যক্তি জীবনে বিবাহিত। উপজেলা কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক মহিবুল্যাহ রামীম, রাফসান হোসেন, রুবেল মির্জা, সদস্য মফিজুল ইসলাম এবং কলেজ শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মিঠু স্থানীয় রাজনীতিতে সম্পৃক্ত নয়, তারা ঢাকার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র।

এদের মধ্যে আল আমিন ভূইয়া নিজেকে ছাত্রলীগের কর্মি দাবী করে ফেসবুকে ষ্ট্যাটাস দিয়ে ছাত্রদলের নব-গঠিত কমিটিতে নাম থাকায় প্রতিবাদ জানান। উপজেলা কমিটির শাহিন আলম অভী ও সেজান, কলেজ কমিটির জয়নাল আবদীন সজিব ছাত্রলীগের বিভিন্ন কর্মকান্ডে সক্রিয় থাকার প্রমান মেলে। —সংবাদ সম্মেলনে এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব মোস্তাফিজুর রহমান, উপজেলা যুবদল নেতা হুমায়ুন পাটওয়ারী, সেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসান মহাজন, দপ্তর সম্পাদক শামছুদ্দিন, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি নুরুল আহাদ তছলিম, যুগ্ম সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন হাওলাদার, যুবদল নেতা আমিনুল আহাদ তৌহিদ, নব-গঠিত কমিটির শরীফ সিকদার, মোঃ মিরাজ, আল-নোমান, মমিন উদ্দিনসহ শতাধিক নেতাকর্মি।