ঢেমশাতে বৈদ্যুতিক খুটির উপর থেকে এক যুবক উদ্ধার

রতন দাশ, সাতকানিয়া প্রতিনিধি: পল্লী বিদ্যুৎ টাওয়ারটি ১৮০ ফুট উঁচু। এটা দিয়ে সঞ্চালিত হয় ১ লাখ ৩২ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ। সেই টাওয়ারের চূড়ায় ২৬ বছরের এক যুবক আল্লা আল্লা চিৎকার এবং নাচানাচি করছেন। আতঙ্ক নিয়ে নিচ থেকে তা দেখছে শত শত মানুষ। চিৎকার করে লোকজন তাঁকে নেমে আসার অনুরোধ করছে।

কিন্তু কে শোনে, কার কথা! চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলায়।কেরানিহাট পশ্চিম পাশ্বে ঢেমশা ইউনিয়নের ঢেমশা রোডের পাশে কৃষিজমিতে থাকা গ্রিড লাইনের টাওয়ারে উঠে যান ঐ যুবক এবং সেখানে নাচানাচি এবং আল্লা আল্লা ডাক শুরু করেন। এই খবর পেয়ে সাতকানিয়া ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের কর্মীরা আসেন এবং স্থানীয় এক ব্যবসায়ী দেলোয়া আযানে মাধ্যমে এবং কৌশলে তাঁকে নামিয়ে আনতে সক্ষম হন। যুবকের নাম মোহাম্মদ নাছির(২৬)সে নোয়াখালী জেলা সেনবাগ থানার সিরাজ বাবুচির ছেলে।

তিনি কয়েকবার টাওয়ারে উঠে অক্ষত অবস্থায় ফিরে এসেছেন বলে দাবি করেছেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীদের দেলোয়ার নামে এক ব্যক্তি বলেন, দুপুর ১১টা ,৩০ মিনিটের দিকে এক যুবককে বিদ্যুতের উঁচু টাওয়ারের চূড়ায় উঠে আল্লা আল্লা বলে চিৎকার করতে দেখা যায়। সবাই তাঁকে নেমে আসার অনুরোধ জানালেও তিনি কারো কথা তোয়াক্কা করেননি। সাতকানিয়া ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশনের অফিসার জুলহাস উদ্দিন বলেন, যুবকটি প্রায় এক ঘন্টার মত টাওয়ারের চূড়ায় ছিলেন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে আসেন এবং খাবারের লোভ দেখিয়ে তাঁকে নিচে নামিয়ে আনেন। নিচে নামিয়ে আনার সাথেই সাথেই তিনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন।তাকে সাতকানিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে ।