ঢামেকে আইসোলেশনে দু’জনের মৃত্যু; করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের নতুন ভবনের নিচতলায় আইসোলেশন ওয়ার্ডে দুইজনের মৃত্যু করানো ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নয়। পরীক্ষার রিপোর্টে তাদের নেগেটিভ এসেছে।

বৃহস্পতিবার (২ এপ্রিল) দুপুরে নতুন ভবনের ওয়ার্ড মাস্টার আবুল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, মৃত দুইজনের রক্তের নমুনা রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) পাঠানো হয়েছিল। পরীক্ষার রিপোর্ট হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের হাতে এসে পৌঁছেছে। পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। তারা করানো ভাইরাসে মারা যায়নি। হাসপাতাল মর্গ থেকে স্বজনদের কাছে স্বাভাবিক নিয়মে মরদেহ দু’টি হস্তান্তর করা হয়েছে।

ঢামেক হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে থাকা যে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে এরমধ্যে একজনের বয়স ৬৫ বছর। আরেকজনের ৩২। তারা করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে এখানে চিকিৎসাসেবা নিচ্ছিলেন।

এর আগে বুধবার (০১ এপ্রিল) ঢামেক হাসপাতালের সহকারী পরিচালক (অর্থ) ডা. আলাউদ্দিন আল আজাদ বাংলানিউজকে বলেন, মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) তারা হাসপাতালে ভর্তি হন। তাদের নতুন ভবনের নিচে আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছিল। এরপর রাত সাড়ে ১০টার দিকে একজনের মৃত্যু হয়। এছাড়া আরেকজন বুধবার (১ এপ্রিল) ভোর ৫টার দিকে মারা যান।

নতুন ভবনের ওয়ার্ড মাস্টার আবুল হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, মৃত দুইজন জ্বর ও ঠাণ্ডাজনিত সমস্যা নিয়ে ভর্তি ছিলেন। তাদের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাসেবা দেওয়া হচ্ছিল।