ঢামেকের করোনা ইউনিটে ৮ দিনে মৃত্যু ১২৬

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ৮ দিনে ১২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। তার মধ্যে গতকাল একদিনে ১৩ জন মারা গেছেন। ১২৬ জনের মধ্যে ২২ জনের করোনা পজিটিভ ছিল। বুধবার (১০ জুন) সকালে ঢামেক মর্গ ও হাসপাতাল সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

ঢামেক হাসপাতাল সূত্রে আরো জানা গেছে, সোমবার রাত ১২টার পর থেকে মঙ্গলবার রাত ১২টা পর্যন্ত মোট ১৩ জন মারা গেছেন। এর মধ্যে দু’জনের করোনা পজিটিভ ছিল। বাকি ১১ জন করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন।ঢামেক হাসপাতালের একাধিক সূত্র আরটিভি অনলাইনকে জানায়, রোববার ও সোমবার মিলিয়ে দু’দিনে ঢামেকের করোনা ইউনিটে মৃত্যু হয়েছে ৩৯ জনের। আজ নিয়ে আটদিনে এখানে মৃত্যু হয়েছে ১২৬ জন।

এদের মধ্যে ২২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল। বাকিরা উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসা নিতে এসে মারা গেছেন।ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে গত ২ মে চালু হয় করোনা ইউনিট। পরে হাসপাতালের নতুন ভবনে (হাসপাতাল-২) তা বর্ধিত করা হয় ১৬ মে থেকে। এই ইউনিটে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে উপসর্গ নিয়ে অনেক রোগী ভর্তি হচ্ছেন।

ঢামেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. আলাউদ্দিন আল আজাদ জানান, করোনা রোগীদের জন্য সর্বপ্রথম ইউনিট চালু করা হয়েছিল ঢামেকের বার্ন ইউনিটে। সেখানে পজিটিভ ও উপসর্গ আছে এমন রোগীদের আলাদা আলাদা চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়। বার্ন ইউনিটে ২৫০টি শয্যার ব্যবস্থা রয়েছে। পরে ১৬ মে হাসপাতালের নতুন ভবনে করোনা ইউনিট-২ উদ্বোধন করা হয়। সেখানে ৫০০ রোগীর শয্যা তৈরি করা হয়েছে। সবমিলিয়ে ঢামেকে ৭৫০ জন করোনা রোগীর চিকিৎসার ব্যবস্থা আছে।