ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে অসংখ্য টিউমার

খোকন আহম্মেদ হীরা,  গৌরনদী (বরিশাল) প্রতিনিধি: বরিশালসহ গোটা দক্ষিণাঞ্চলে সড়কপথে প্রবেশের একমাত্র ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের গৌরনদী উপজেলার ভুরঘাটা বাসষ্ট্যান্ড থেকে উজিরপুরের জয়শ্রী বাসষ্ট্যান্ড পর্যন্ত সড়কের বিভিন্ন এলাকায় অসংখ্য খানাখন্দসহ বেশ কিছু এলাকায় অসংখ্য টিউমারের সৃষ্টি হয়েছে। ফলে প্রতিনিয়তই ঘটছে ছোট বড় দূর্ঘটনা।

সরেজমিন মহাসড়কের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, ভূরঘাটা থেকে জয়শ্রী বাসষ্ট্যান্ড পর্যন্ত সড়কের বিভিন্ন এলাকায় ছোট বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। সড়কের কয়েক জায়গায় উচু হয়ে টিউমারের সৃষ্টি হয়েছে। এতে করে খানাখন্দে পরে প্রতিনিয়ত মোটরসাইকেল চালকরা দূর্ঘটনার স্বীকার হচ্ছেন। মহাসড়ক দিয়ে চলাচলকারী মালবাহী ও যাত্রীবাহী পরিবহনের চালকরা জানান, জয়শ্রী থেকে ভুরঘাটা পর্যন্ত মহাসড়কের বিভিন্ন এলাকায় ছোট বড় অসংখ্য গর্ত রয়েছে।

চলন্ত গাড়ীর চাকা গর্তের মধ্যে পরে ইঞ্জিন ও টায়ার-টিউবের সমস্যা হচ্ছে। পাশাপাশি যাত্রীদের চরম ভোগান্তির সৃষ্টি হচ্ছে। একাধিক মোটরসাইকেল চালকরা জানান, বৃষ্টি নামলেই মহাসড়কের গর্তে পানি জমে থাকে। ফলে গর্ত আর চোখে পরেনা । এমন পরিস্থিতিতে বাইকের গতি কম থাকলেও গর্তে পরে দূর্ঘটনার স্বীকার হতে হচ্ছে। এছাড়াও বড় যানগুলো মোটরসাইকেল আরোহীদের গর্তে জমে থাকা পানি দিয়ে ভিজিয়ে দিচ্ছে। এতে করে ভোগান্তি বাড়ছে ছোট যানচালকদের।

গৌরনদী হাইওয়ে থানার ওসি মোঃ মুজাহিদুল ইসলাম জানান, বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কে সৃষ্টি হওয়া খানাখন্দের কারনে ইতিমধ্যে কয়েকটি দূর্ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি বরিশাল সড়ক জনপথ বিভাগকে অবহিত করা হয়েছে। বরিশাল সড়ক ও জনপথ কার্যালয়ের উপ-সহকারী প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম জানান, গত তিন বছর পূর্বে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সড়কটি সংস্কার করা হয়েছিলো। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সাথে সড়ক সংস্কারের চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়েছে। ডিপার্টমেন্টালভাবে সড়কটি সংস্কার কাজ চলমান আছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।