ডুমুরিয়ায় হাইদুল খানের বিরুদ্ধে ৯ বছরের ভাইজিকে ধর্ষণের অভিযোগ

জাহাঙ্গীর আলম (মুকুল), ডুমুরিয়া প্রতিনিধি: খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলায় ৯ বছর বয়সী শিশু ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। সোমবার রাতে ধর্ষিতার চাচা কে আসামি করে থানায় এ মামলা করেন শিশুটির পিতা। ঘটনায় অভিযুক্ত ডুমুরিয়ার আজিজুর রহমান খানের ছেলে হাইদুল খান (৪৫)কে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। থানা পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়; শনিবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে শিশুর পিতার আপন চাচাতো ভাই ৩ সন্তানের জনক কৌশলে তার বাড়ির ঘরে নিয়ে যায়।

সেখানে নিয়ে শারীরিক নির্যাতনপূর্বক শিশুটিকে ধর্ষণ করে। শনিবার সন্ধ্যায় শিশুটি কাঁদতে কাঁদতে তার মাকে বিষয়টি জানায়। শিশুটির পিতা মাতা আত্মসম্মানের কারণে পারিবারিকভাবে ঘটনাটি চাপা দেয়া চেষ্টা করেন। কিন্তু সন্ধ্যায় শিশুটির শরীরে ব্যথা অনুভব করে কাঁদতে থাকলে রাত ৯টার দিকে ডুমুরিয়া হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানকার ডাক্তারের পরামর্শে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

ঘটনাটি থানা পুলিশ অবগত হয়ে ওই পিচাশকে আটক করে থানায় নিয়ে যান। আজ সোমবার তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন থানা পুলিশ। এ দিকে আজ সোমবার বিকেলে খুলনার এ,এস,পি (সার্কেল) সজীব খান ও থানা ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম বিপ্লব ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। শিশুটির বাবা বলেন, ‘আসামি আমার আপন চাচাতো ভাই। কি ভাবে সে এমন কাজ করল,তা ভাবতেই পারছি না।

এ ব্যাপারে ডুমুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম বিপ্লব জানান; বিষয়টি  হলে রোববার রাতে অভিযুক্ত আসামীকে আটক করা হয়। ঘটনা উল্লেখ করে ৫৪ ধারায় আসামিকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। সোমবার রাতে দায়েরকৃত মামলায় তাকে আসামি করা হয়েছে।