ডুমুরিয়ায় বি লাইফ ঋণদান ও বাদশা ট্রেডার্স সমিতির নামে সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণার অভিযোগ

জাহাঙ্গীর আলম (মুকুল), ডুমুরিয়া খুলনা প্রতিনিধি: খুলনা ডুমুরিয়া উপজেলায় চুকনগর বাজারে বি লাইফ ঋণদান ও বাদশা ট্রেডার্স সমিতির নামে শত শত মানুষের সাথে প্রতারণা এবং সঞ্চয় এর জমাকৃত প্রায় দুই লক্ষ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভুক্তভোগীরা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। উক্ত অভিযোগে জানা যায় চুকনগর নরনিয়া গ্রামের ৩০থেকে ৩৫টি পরিবার চুকনরগর বাজার এই বি লাইফ ঋণদান সমবায় সমিতি বাদশা টেডার্সে দীর্ঘদিন ধরে সঞ্চয়ের প্রায় দুই লক্ষ টাকা জমা রাখেন। কিন্তু কারোও দীর্ঘ ২বছর কারোও দীর্ঘ তিন বছর হয়ে গেলেও সঞ্চয় জমা কৃত টাকা ফেরত দিচ্ছে না এই বার্দশা টেডার্সের মালিক বিল্লাহ ওরফে বাদশা মিয়া।

বিভিন্ন সূত্রে জানা যায় এই বাদশা ট্রেডার্স এর নাম ব্যবহার করে বিভিন্ন মানুষকে বিভিন্ন ব্যবসার প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারণা করেই চলেছে। ভুক্তভোগী এই সকল গ্রাহকরা বি লাইফ ঋণদান এবং বাদশা ট্রেডার্সের মালিক ওরফে বাদশা মিয়ার কাছে তাদের সঞ্চয় জমাকৃত টাকা ফেরত চাইলে একের পর দিন দিতে থাকে। এভাবে একের পরে এক দিন নিতে থাকে এই গরীব অসহায় মানুষের সঞ্চয় কৃত টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য।

দীর্ঘ ২/৩বছর অতিক্রম করার পরে ভুক্তভোগীরা তার অফিসে যায় অফিসে যেয়ে টাকা ফেরত চাইলে এই অসহায় গরিব গ্রাহকদের সাথে বাদশা মিয়া অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ সহ বিভিন্ন মামলার ভয় দেখায়। অবশেষে গত ২৬/৯/২০২০তারিখে উক্ত সমিতির ম্যানেজার লিটন হোসের নরনিয়া গ্রামে তাদের মাঠকর্মী আজিদা বেগমের বাড়ি যায় তখনি ঐ গ্রামের দীর্ঘ দিনের সঞ্চয় জমা রাখা টাকা পাওনা সকল গ্রাহকেরা তার কাছে টাকা ফেরত চাইলে এক পর্যয়ে বার্দশা ট্রেডার্সের ম্যানেজার লিটন তার নিজ ব্যাবহারীত মটর সাইকেল রেখে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে জানা যায় এই গ্রাহকদের নামে ডুমুরিয়া থানায় মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের নামে একটি এজাহার দায়ের করা হয়।

এই ব্যাপারে ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছা শাহানাজ বেগম বলেন আমরা এই ব্যাপারে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ডুমুরিয়া উপজেলা সমবায় অফিসার বলেন। আমরা একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি কিন্তু এই বি লাইফ ঋণদান সমিতি এবং বার্দশা ট্রেডার্স নামে কোন সমবায় সমিতির আমাদের সাথে সম্পর্কিত নাই এটা সম্পুর্ন একটা ভুয়া এইটা সমিতি মালিক মানুষের সাথে প্রতারণা করা হচ্ছে বলে আমার মনে হয়। এই বিষয়ে বাদশা ট্রেডার্সের মালিক বিল্লাল ওরফে বাদশার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি জানান আমাকে হেয় প্রতিপন্ন ও ব্যাবসার সুনাম নষ্ট করার জন্য কতিপয় কিছু লোক অসাধু উপায় অবলম্বন করছে।