ডুমুরিয়ায় আবারও সড়ক দূর্ধটনায় ঝরে গেলো আরও একটি তরতাজা প্রাণ

জাহাঙ্গীর আলম (মুকুল), ডুমুরিয়া খুলনা প্রতিনিধি: খর্নিয়া হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রেজাউল করিম রেজা জানায় ২৬ ই অক্টোবর মঙ্গলবার সকালে কুয়াকাটা থেকে মিমজাল পরিবহনের যাত্রিবাহি একটি বাস সাতক্ষিরার উদেশ্যে ছেড়ে আসে।

খুলনা সাতক্ষিরা মহাসড়কের ডুমুরিয়া উপজেলার বরাতিয়া দাস পাড়া নামক স্হানে বিকাল সাড়ে তিনটার সময় মিমজাল পরিবহনের নিয়ত্রন হারায় চালক। এসময় পরিবহন টি মহাসড়কেের ডান পাশে কলম দাসের বসত বাড়ির রান্না ঘরের উপর দিয়ে যেয়ে থেমে যায়।

এসময় ঘঠনাস্হলে একজন চল্লিশ বছরের নারির মৃত্যু হয়। এ ঘঠনায় আহতদের কোন সংবাদ পাওয়া যায়নি। খবর পেয়ে খর্নিয়া হাইওয়ে থানা পুলিশ ও ডুমুরিয়া ফায়ার সার্ভিসের একটি চৌকস দল উদ্ধার অভিযান শুরু করে। স্হানিয়রা বলছেন মিমজাল পরিবহনের বেশ গতী থাকার কারনে চালক নিয়ত্রন হারিয়ে রাস্তার ডান পাশে কলম দাসের বসতবাড়ির ভিতরে যেয়ে থেমে যায়।

চালক ও হেলপার কে খুজে পাওয়া যায় নি। নিহত নারির পরিচয় পাওয়া গেছে নিহতের বাড়ি ডুমুরিয়া উপজেলার আটলিয়া ইউনিয়নের বরাতিয়া গ্রামে নারায়াণ দাসের সহধর্মিণী পাতারাণি দাস (৪০)এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ডুমুরিয়া থানা পুলিশ লাশ পোস্টমর্টেমের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে প্রেরন করে।