ডুমুরিয়া উপজেলার সাহস রাজাপুর মইখালী কাঠের ব্রীজের বেহাল দশা

জাহাঙ্গীর আলম (মুকুল), ডুমুরিয়া খুলনা প্রতিনিধি: ডুমুরিয়ায় সাহস রাজাপুর মইখালী সড়কের ব্রীজের বেহাল দশা। যাতায়াতের সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে সাধারণ মানুষের। অতিসত্তর মেরামতের আশ্বাস,এম পি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের। খুলনা জেলার ডুমুরিয়া উপজেলার সাহস রাজাপুরের ব্রীজটি ভেঙ্গে যাওয়ার কারণে জনসাধারণ ও পথ‌চারীদের যাতায়াতের দারুন অসুবিধা হচ্ছে।

এলাকাবাসী ও পথচারী জানায় দীর্ঘদিন ধরে ব্রীজটি অকাজো হয়ে পড়ায় এল জি ই ডি থেকে আড়াই কোটি টাকা বাজেট হয়। জৈনক ঠিকাদার শেখ বাবলুর রহমান এ কাজ পায়। ঠিকাদার দির্ঘ দিন ধরে ব্রীজটি সমান্য কাজ‌ করে ফেলে রেখেছেন। এলাকার জন সাধারণ ও পথচারী থেকে জানা গেছে পুরাতন কাঠের ঐ ভাঙ্গা ‌ ব্রীজটি‌ দিয়ে মোঃ হায়দার আলী মোড়ল,পার হওয়ার সময়‌ পড়ে যেয়ে ‌মাজার পাজড়ের হাড় ভেঙ্গে গেছে। রাজাপুর গ্রামের ছেলে শাহিদুল ইসলাম মাঝি, বাললু সরদার, মিজানুর রহমান সরদার, খলিল শেখ ‌সহ অনেকেই ব্রীজের উপর থেকে নিচে পড়ে হাত,পা সহ খতি হয়েছে।

সরকারী ‌ভাবে নতুন বীজ বাজেট হলেও ঠিকাদার দির্ঘ দিন ধরে কাজ না করার কারণে। হাজার হাজার মানুষের সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। ‌মইখালি ব্রীজটির‌ বিষয় সম্পর্কে ডুমুরিয়া উপজেলা প্রকৌশলী বিদ্যুৎ দাসের ‌নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান ডুমুরিয়া উপজেলার সাহস রাজাপুর মই খালী বীজের কাজের ঠিকাদার শেখ বাবলুর রহমান, সে দির্ঘ দিন ধরে কাজ ফেলে রেখেছেন। অনেক বার তাগিত দিলেও কাজ করছে না। এ ব্যাপারে ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ শাহনাজ বেগমের নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান অতি সত্বর পুরাতন কাঠের ব্রীজের মেরামতের কাজ করে দেওয়ার আশ্বাস প্রদান করেন।

ও নতুন বীজটি অতিসত্বর কাজ হয় সে ব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলী বিদ্যুৎ দাসের সাথে আলাপ করে কাজ উঠানোর ব্যাবস্তা করবেন। খুলনা ৫আসনের সংসদ সদস্য নারায়ণ চন্দ্র চন্দের নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান আমি শুনেছি পুরাতন ব্রীজটি অকার্যকর হয়ে যাওয়ার কারণে জনসাধারণের যাতায়াতের অসুবিধা হচ্ছে।অতি সত্বর মানুষ যাতায়েত করতে পারে ।

সে ব্যাবস্তা করার আশ্বাস প্রদান করেন। এবং নতুন বীজটি কাজ‌ যাহাতে তাড়াতাড়ি হয় ,সে ব্যাপারে নির্বাহী প্রকৌশলী ও স্থানীয় কর্মকর্তাদের নির্দেশ প্রদান করেন বলে আশ্বাস প্রদান করেন। উল্লেখ্য আড়াই কোটি টাকা কাজ ১ বছর মেয়াদ দিলেও ‌সে খানে অল্প কাজ করে বছর ধরে ফেলে রেখেছেন। অতি সত্বর নতুন ব্রীজটি কাজ‌ তাড়াতাড়ি হয় ।সে ব্যাপারে সংশিলিষ্ট বিভাগের উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষের নিকট আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ,এলাকাবাসী ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ !