ডুমুরিয়ায় ইউএনও শাহনাজ বেগম কর্মবীর ও শৈল্পিক মানুষ

 জাহাঙ্গীর আলম (মুকুল), ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি: খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার নির্বাহী অফিসার একজন মানুষ মহৎ হয় তার কর্ম গুণে। পৃথিবীতে এমন অনেক মানুষ আছে, যারা তাদের কাজ কর্ম, সফলতা অর্জন সবকিছু উৎসর্গ করে দেশের তরে, মানবের কল্যাণে। নিঃস্বার্থভাবে করেন মানবের কল্যাণ, দেশের কল্যাণ। তারা তাদের দায়িত্বে অবহেলা না করে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করে থাকেন।
এমনই একজন হলেন ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছাঃ শাহনাজ বেগম। ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) উপজেলার শিক্ষা সাংস্কৃতির পরিবেশ যখন ঘুলাটে ও তেলবিহীন প্রদীপেরমতো নিভু নিভু অবস্থা, ঠিক তখনই আলোকবর্তিকা হয়ে ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দায়িত্ব নিয়ে মোছাঃ শাহনাজ বেগম। এই কর্মবীর শৈল্পিক মানুষটি ডুমুরিয়ায় যোগদান করেই শিল্প সহ গোটা ডুমুরিয়া কে পরিবেশ গুণগত ও মানসম্পন্ন করার উদ্দেশ্যে কাজ শুরু করেন। কারণ তিনি বিশ্বাস করেন- একটি উপজেলার সার্বিক উন্নয়নের আগে উপজেলাকে মানুষের বাসযোগ্য করে গড়ে তুলতে হবে।
উপজেলার পরিবেশ রক্ষা করতে হবে। তাই রোদ-বৃষ্টি উপেক্ষা করে কখনো বাঁশের সাঁকো বেয়ে, কখনো ক্ষেতের আলপথ দিয়ে হেঁটে, কখনো ইঞ্জিনচালিত নৌকায় করে তিনি ছুটে চলেন ভৌগোলিকভাবে হাওর-বাঁওড়ে অবস্থিত গ্রাম গুলোতে। যেখানে আগে কখনো কোনো ইউএনওর পায়ের চিহ্ন পড়েনি। ডুমুরিয়া সচেতন ব্যক্তিরা আশাবাদ ব্যক্ত করেন বাংলাদেশে যদি তার মতো আরো ১০০জন এরকম নিবেদিতপ্রাণ, দেশপ্রেমিক, সৎ,কর্মবীর মোছাঃ শাহনাজ বেগম থাকত তাহলে উন্নত জাতি গঠনে সারাদেশের চিত্রটা পাল্টে যেতো। চীরনবীন সদালাপী এই মানুষটি মন ওমননে সব সময় একজন সুচিন্তার মানুষ।