ডুমুরিয়ার আঠারমাইলে মায়ের উপর অভিমান করে মাদ্রাসা ছাত্রীর আত্মহত্যা

জাহাঙ্গীর আলম (মুকুল), ডুমুরিয়া খুলনা প্রতিনিধি খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার মাগুরাঘোনা ইউনিয়নের আঠারমাইলে

মায়ের উপর অভিমান করে নিজ ঘরে আড়ার সাথে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে আম্বিয়া খাতুন(১৪) নামের এক মাদ্রাসা ছাত্রী।

রোববার (১৮ এপ্রিল) ডুুমুরিয়া উপজেলার আঠারোমাইলের বাদুড়িয়া রোডে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে,

ডুমুরিয়া উপজেলার মাগুরাঘোনা ইউনিয়নের আরশনগর গ্রামের দিন মজুর রেজাউল গোলদার তার স্ত্রী, সন্তান ও সৎ কন্যাকে নিয়ে

আঠারো মাইল বাজারের বাদুড়িয়া রোডে আমজাদের চায়ের দোকানের পিছনে একটি টিনের তৈরি ভাড়া বাড়িতে বসবাস করেন।

জানা যায়, নিহত আম্বিয়া আঠারমাইল মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেনিতে পড়ুয়া একজন মেধাবী ছাত্রী।

করোনা মহামারির ও লকডাউনের কারনে মাদ্রাসা বন্ধ থাকায় আম্বিয়া বাসায় অবস্থান কালে পার্শ্ববর্তি অন্য একটি ভাড়াটিয়ার ঘরে প্রায়ই সময় অবস্থান করতো।

এ নিয়ে আম্বিয়ার মা তাকে বকা ঝকা করতো। তার জেরে গতকাল রোববারে আম্বিয়ার মা মেয়েকে বাসায় রেখে

পার্শ্ববর্তি এলাকায় ক্ষেতে কর্মরত স্বামী রেজাউলের জন্যে খাবার নিয়ে যায়। সেখান থেকে বাসায় ফিরে এসে আম্বিয়াকে

ঘরের দরজা বন্দ করে থাকতে দেখে ডাকা ডাকি করতে থাকে। কিন্তু তার কোন সাড়া না পেয়ে ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঘরে

ঢুকে তাকে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলান্ত অবস্থায় দেখতে পায়। এসময় স্থানীয় লোকজন থানা পুলিশকে খবর দেয়।

খবর পেয়ে ডুুমুরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ওবাইদুর রহমান নিজে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ বিষয়ে থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ ওবাইদুর রহমান জানান, লাশের সুরত হাল রিপোর্ট তৈরী করে ময়না তদন্তের জন্যে

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়ন তদন্ত শেষে মরদেহ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু হয়েছে।