ট্রাম্পের কাছে পাঠানো হলো বিষাক্ত রিচিনের প্যাকেট

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আগামী ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। এই নির্বাচন নিয়ে চলছে নানা আলোচনা এবং সমালোচনা। কিন্তু তার আগেই প্রকাশ্যে এল একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য। কে বা কারা বর্তমান প্রেসিডেন্ট ও রিপাবলিকান পার্টির প্রতিদ্বন্দ্বী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে উদ্দেশ্য করে তার ঠিকানায় বিষাক্ত রিচিনের প্যাকেট পাঠিয়েছিল। তবে সেটি ট্রাম্পের কাছে পৌঁছানোর আগেই সনাক্ত করেছে নিরাপত্তা সংস্থার কর্মকর্তারা।
নিরাপত্তা সংস্থার দুই কর্মকর্তার বরাত দিয়ে শনিবার (২০ সেপ্টেম্বর) এ তথ্য জানায় সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্যাকেটটি হোয়াইট হাউজে ঢোকার পরপর দু’বার পরীক্ষা করা হয়। কিন্তু দু’বারই বিষাক্ত রিচিনের উপস্থিতি নিশ্চিত করেছেন নিরাপত্তা কর্মকর্তারা। ট্রাম্পের নামে এই প্যাকেটটি এসেছে কানাডা থেকে। তবে কে বা কারা পাঠিয়েছে এবং নিরাপত্তা ভেদ করে কীভাবেই বা হোয়াইট হাউজে তা ঢুকল এসব বিষয় খতিয়ে দেখছে এফবিআই ও সিক্রেট সার্ভিস।

তাদের পাশাপাশি কানাডাও বিষয়টি খতিয়ে দেখছে। কানাডার জননিরাপত্তা মন্ত্রণালয়ের প্রধান মুখপাত্র ম্যারি-লিজ পাওয়ার জানিয়েছেন, এই ঘটনা উদঘাটনে তারা মার্কিন সংস্থাকে সব ধরনের সহযোগিতা করবে। তবে তদন্তের আগে এ বিষয়ে তারা আর কোন কথা বলতে রাজি নয়।

এই ঘটনার পর হোয়াইট হাউজের ঠিকানায় পাঠানো সকল পার্সেলের বিষয়ে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। এখন থেকে কোন পার্সেল একাধিকবার পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়া হোয়াইট হাউজে ঢুকবে না।

পাশাপাশি একই ধরনের অন্যান্য প্যাকেটগুলোও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে।