ট্রাকের চাকায় পিষ্ট পথচারীকে হাসপাতালে নিলেন ম্যাজিস্ট্রেট

মোঃরাশেদ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ নগরের কালামিয়া বাজার এলাকায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক পার হচ্ছিলেন পথচারী মো. আজিজ। দ্রুত গতির একটি বালুর ট্রাকের ধাক্কায় ঘটনাস্থলেই পড়ে যান তিনি। আটকে পড়েন ট্রাকের চাকার নিচে। গুরুতর আহত আজিজকে উদ্ধারে আশপাশের কেউ এগিয়ে না এলেও ওই এলাকায় অভিযানে যাওয়া জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রেজওয়ানা আফরিন তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পৌঁছে দিয়েছেন।

সোমবার (২৭ এপ্রিল) দুপুরের দিকে এ ঘটনা ঘটে। ম্যাজিস্ট্রেট রেজওয়ানা আফরিন জানান, বাকলিয়া এলাকায় অভিযান শেষে ফেরার সময় সড়কে বালুর ট্রাকের নিচে একজনকে আটকে থাকতে দেখি। আঘাতে তার মাথা এবং মুখ থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছিলো। ‘গাড়ি থামিয়ে দ্রুত তাকে উদ্ধার করি। নিজের গাড়িতে নিয়ে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পৌঁছে দিই। হাসপাতালের ২৮ নম্বর ওয়ার্ডের ২০ নম্বর বেডে চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি।’ ম্যাজিস্ট্রেট জানান, এই ঘটনায় ট্রাকের চালককে আটক করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বাকলিয়া থানা পুলিশকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

 

গুরুতর আহত আজিজকে ওষুধসহ সব ধরনের সহায়তা দেওয়া হচ্ছে জেলা প্রশাসন থেকে। চিকিৎসকের বরাত দিয়ে চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জহিরুল হক ভূঁইয়া জানান, ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে আজিজের মাথায় এবং মুখে মারাত্মক আঘাত লেগেছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয়েছে। তিনি এখনো আশঙ্কামুক্ত নন। দ্রুত তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে না আনলে বড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারতো। মো. আজিজ নগরের বাকলিয়া থানার কালামিয়া বাজার এলাকার বাদশাহ মিয়া বাড়ির বাসিন্দা বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

বিসিএস ৩৬ তম ব্যাচের কর্মকর্তা ম্যাজিস্ট্রেট রেজওয়ানার মানবিক এই কাজ সমাজের সবার জন্য অনুকরণীয় বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের ঊর্ধতন কর্মকর্তারা। চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট বদিউল আলম জানান, ট্রাকের চাকায় পিষ্ট পথচারীকে নিজে উদ্ধার করে হাসপাতালে পৌঁছে দিয়ে ম্যাজিস্ট্রেট রেজওয়ানা ‘জনসেবায় জনপ্রশাসন’ স্লোগানটি বাস্তবে করে দেখিয়েছেন। তিনি বলনে, এই সময়ে শুধু প্রশাসনের কর্মকর্তারা নন, সমাজের প্রত্যেককে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। আশা করি ম্যাজিস্ট্রেট রেজওয়ানার মানবিকতা সবাইকে মানুষের পাশে দাঁড়াতে উৎসাহ দেবে।