টঙ্গীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে কিশোরের মৃত্যু, বাড়ি লকডাউন

 মোঃআল-আমিন টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের টঙ্গীর আউচপাড়া এলাকায় করোনাভাইরাসের উপসর্গ (স্বাশকষ্ট) নিয়ে গতকাল রাত তিনটায় ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে মারা যায় এক কিশোর।মৃতদেহে করোনা রয়েছে এমন সন্দেহে পুরো বাড়ি লকডাউন করেছে এলাকাবাসী। তাদের দাবি, মৃতের শরীরে করোনার উপসর্গ জ্বর, স্বর্দি, শ্বাসকষ্ট ছিল। মৃত কিশোরের নাম সাকিব (১৬)। সে পরিবার নিয়ে ভাড়া থাকতো ওই এলাকার ফারজানা বেগমের বাড়িতে। সাকিবের পিতার নাম বিল্লাল হোসেন। এলাকাবাসী জানায়, ওই কিশোর গত কয়েক সপ্তাহ ধরে সর্দি ও কাঁশিতে ভুগছিল। সোমবার গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে কুর্মিটোলা হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে চিকিৎসাধিন অবস্থায় মঙ্গলবার রাত তিনটায় সে মারা যায়। তাদের ধারণা করোনার উপসর্গেই মৃত্যু হয়েছে সাকিবের। বাড়তি সতর্কতা হিসেবে তারা বাড়িটিকে লকডাউন করে দেন। টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমদাদুল হক বলেন, এলাকাবাসীর কাছ থেকে মৃতের সংবাদ পেয়ে সিভিল সার্জনকে অবহিত করা হয়েছে। আপাতত ওই এলাকায় জনগণের চলাচল সীমিত করা কয়েছে। প্রয়োজনে লকডাউন করা হবে। তবে স্থানীয় কাউন্সিল নিজ উদ্যোগে বাড়িটি লকডাউন করেছে। গাজীপুর সিভিল সার্জন খাইরুজ্জামান বলেন, পুলিশ বিষয়টি অবগত করেছে। মৃতের দেহ হাসপাতালে রয়েছে।