জামালপুরে ২ চিকিৎসক ১ শিশুসহ ১০ জনের করোনায় শনাক্ত, মোট আক্রান্ত ২০৩

মো: শামীম হোসেন, জামালপুর জেলা প্রতিনিধিঃ জামালপুরে গত ২৪ঘন্টা প্রানঘাতী করোনা ভাইরাসে দুই চিকিৎসক তিন স্বাস্থ্যকর্মী এক শিশুসহ ১০ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা সংক্রামণ শনাক্ত হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ৩৩ নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে ১০জনের করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে।

মঙ্গলবার(২৬মে) ওই ব্যক্তিদের দেহে করোনা পজেটিভ শনাক্ত নিশ্চিত করেছেন জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। জেলায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে জামালপুর সদরে ১০ জন।

জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক মোঃ মাহফুজুর রহমান সোহান জানান, মঙ্গলবার জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ ল্যাবের পরীক্ষায় ১০জন করোন শনাক্ত হয়। ওই ব্যক্তিরা জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে নমুনা দিয়েছিল।জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২০৩।

আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে জামালপুরে দুইজন চিকিৎসক শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের প্রভাষক ৩৭বছর বয়সী অন্য আরেক জন ৩৪ বছর বয়সী এই চিকিৎসকের ভাতিজা ১৪ বছর বয়সী ৮ম শ্রেনীর ছাত্র সে শহরের বকুল তলায় থাকে, জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের ৩২ বছর বয়সী সিনিয়র স্টাফ নার্স ও ৩৫ বছর বয়সী ল্যাব টেকনেসিয়ান, সদর উপজেলার ঘোড়াধাপ ইউনিয়নের কমিউনিটি স্বাস্থ্য ক্লিনিকের ৩০ বছর বয়সী এক স্বাস্থ্য সহকারি , আগেই শনাক্ত হওয়া চিকিৎসক শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের একজন প্রভাষক তার সাড়ে ১৮ মাসের এক অবুঝ শিশু সন্তান ও তার বাড়ীর ১৬ বছর বয়সী এক গৃহ-পরিচালিকা , সদরের নান্দিনা এলাকায় ৩২ বছর বয়সী এক ব্যক্তি ও সম্প্রতি ঢাকা ফেরত ৪৫ বছর বয়সী এক নারী ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত হয়ে তার গ্রামের বাড়ী সদর উপজেলার শাহবাজপুর কইডুলা আসলে ওই ব্যক্তিদের করোনা ভাইরাসের উপসর্গ থাকায় তাদের নমুনা পরীক্ষায় পজেটিভ আসে।এনিয়ে জেলায় ২৪ চিকিৎসক, একজন পল্লী চিকিৎসক ও ৫৭ জন সরকারী স্বাস্থ্যকর্মী এবং ১০জন বেসরকারী স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।আক্রান্ত ২০৩ জনের মধ্যে ৪জন করোনা আক্রান্তে মারা যায় ।এদের মধ্যে ২ নারীর ও দুই পুরুষ ও হোম আইসেলেশনে থাকা একজন চিকিৎসককের অবস্থা অবনতি হলে ঢাকায় রেফার করা হয়েছে।এছাড়াও শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের আইসোলেশন ইউনিট থেকে ছাড়প্রত্র নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৯৫জন।