জামালপুরে করোনায় পরিবহণ শ্রমিকের মৃত্যু, এক চিকিৎসকসহ নতুন ১২জন শনাক্ত

মোঃ শামীম হোসেন, জামালপুর জেলা প্রতিনিধি: করোনায় আক্রান্ত হয়ে আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জামালপুরের মেলান্দহের এক পরিবহণ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। বৃহষ্পতিবার বিকেলে ময়মনসিংহের এসকে হাসপাতালের আইসেলেশনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।জেলায় করোনা আক্রান্তে মৃত্যু হয় ৪ জনের। জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ৯৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে দুই উপজেলায় ১২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। জামালপুরে মোট আক্রান্ত ১৬৯ জন।

জামালপুরের সিভিল সার্জন ডা: প্রণয় কান্তি দাস জানান, গত ১৯ মে মঙ্গলবার মেলান্দহ উপজেলার ঝাউগড়া ইউনিয়নের কাপাসহাটিয়া গ্রামের ৫৩ বছর বয়সী এক ব্যক্তির নমুনা পরীক্ষায় করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। ২০ মে বুধবার তাকে জামালপুরের শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশনে আনা হয়। সেখানে তার প্রচুর শ্বাস কষ্ট হলে অবস্থার অবনতি ঘটে ওই দিনই ময়মনসিংহ এসকে হাসপাতালের আইসোলেশনে পাঠানো হয়। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহষ্পতিবার বিকেলে তার মৃত্যু হয়। তার লাশ রাতেই জামালপুরে মেলান্দহে আনার হবে।

আইইডিসিআর এর নিয়ম মেনে তার লাশ দাফন করা হবে বলে জানান জামালপুরের সিভিল সার্জন। এদিকে বৃহষ্পতিবার জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় সদরের একজন চিকিৎসকসহ ১২জন পজেটিভ হয় , এদের মধ্যে সদরের ৪, মেলান্দহের ৮ জন শনাক্ত। ওই ব্যক্তিরা জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ও মেলান্দহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা দিয়ে ছিল।মোট আক্রান্ত ১৬৯ আর করোনায় আক্রান্ত হয়ে জামালপুরে মোট ৪ জনের মৃত্যু হলো।

এদের মধ্যে ইসলামপুর উপজেলার ২ নারীর মৃত্যুর পর নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছিল। বাকী দেওয়ানগঞ্জ ও মেলান্দহে দুই পুরুষ চিকিৎসাধীন অবস্থায় আইসোলেশনে মারা যায় । জামালপুরে এখন পর্যন্ত সদরে ৫০, মেলান্দহে ৪৬, ইসলামপুরে ২৬, মাদারগঞ্জে ১৩, সরিষাবাড়িতে ১৩, বকশীগঞ্জে ১২, দেওয়ানগঞ্জে ৯ জনসহ মোট ১৬৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। জেলায় সুস্থ্য হয়েছে মোট ৮৫ জন। ।