ছেলের পর এবার দুই গৃহকর্মীসহ হাসিনা মহিউদ্দিনও করোনায় আক্রান্ত

মোঃ রাশেদ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র প্রয়াত এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর স্ত্রী এবং শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের মা, চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা লীগের সভাপতি হাসিনা মহিউদ্দিনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদের বাসার দু’জন কর্মচারীও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

উল্লেখ, গত ১০মে সালেহীনের করোনা শনাক্ত হওয়ার পর ১১ মে চৌধুরী পরিবারের চট্টগ্রামের বাসা থেকে ৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। তার মধ্যে তিনজনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হলো।

অপরদিকে, মঙ্গলবার বিকেলে ঢাকার করোনা পরীক্ষার ল্যাব আইইডিসিআর থেকে পাঠানো রিপোর্টে উপমন্ত্রী নওফেল, তাঁর স্ত্রী, সন্তান, গাড়িচালক, গানম্যানসহ সবার করোনা নেগেটিভ এসেছে। পাশাপাশি বোরহানুল হাসান চৌধুরী সলেহীনের স্ত্রী, নবজাত সন্তান, শ্বশুর-শাশুড়িসহ পরিবারের ১২ সদস্যেও পরীক্ষাও নেগেটিভ এসেছে।

মঙ্গলবার (১৩মে) রাতে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. ফজলে রাব্বি জানান, মহিউদ্দিনের ছেলে বোরহানুল হাসান চৌধুরী সালেহীনের করোনা পজেটিভ পাওয়ার পর সোমবার তাদের পরিবারের আট জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এরমধ্যে হাসিনা মহিউদ্দিন, শাকী ও হারাধন নামে দুই কর্মচারীর শরীরে করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে। অন্যদের ক্ষেত্রে নেগেটিভ। ফৌজদারহাটে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেজ (বিআইটিআইডি) ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

গত ১০ মে নমুনা পরীক্ষায় হাসিনা মহিউদ্দিনের ছোট ছেলে বোরহানুল হাসান চৌধুরীর শরীরেও করোনাভাইরাস পাওয়া যায়।

জানা গেছে, আক্রান্ত বাকী দুই জনের একজন ১৮ বছর বয়সী নারী গৃহকর্মী এবং আরেকজন ৫০ বছর বয়সী পুরুষ কর্মচারী।

আক্রান্তরা সকলে চিকিৎসকের পরামর্শে চশমাহিলের মেয়র গলিতে বাসায় আইসোলেশনে আছেন।