ছিনতাইয়ের প্রতিবাদ করায় নাগরপুরে মাদক সেবীর ছুরিকাঘাতে ২ জন গুরুতর জখম

মতিউর রহমান, নাগরপুর(টাঙ্গাইল)প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের নাগরপুরে ছিনতাইয়ের প্রতিবাদ করায় মাদক সেবী ছিনতাইকারির ছুরিকাঘাতে ২ জন গুরুতর জখম হয়েছে। আহতরা হচ্ছেন, দুয়াজানী গ্রামের নুরু মিয়া (৫৫) ও মতিয়ার রহমান (৫০)। স্বজনরা মূমুর্ষ অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে নুরু মিয়ার অবস্থা আশংকজনক হওয়ায় দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে রেফার্ড করেন ।

শনিবার দুপুরে উপজেলা সদরের নয়ান খান মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন ব্রীজে এ ঘটনাটি ঘটে।
প্রত্যক্ষদশর্ী রিপা বেগম জানান , শনিবার দুপুর ১২টার দিকে আমার এক আত্মীয় অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র হোসাইন সদর বাজার থেকে দুয়াজনী গ্রামে আমার ভাড়া বাসায় ফিরছিল। হোসাইন নয়ান খান মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন ব্রীজের কাছে পৌছলে সেখানে আগে থেকে বসে থাকা নাগরপুর গ্রামের কিরনের ছেলে মাদক সেবী ফয়সাল ও দুয়াজানী গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে মিলন তার পথ আটকে দাড়ায়। এসময় মাদক সেবী ফয়সাল ও মিলন ছুরির ভয় দেখিয়ে হোসাইনের কাছ থেকে ১২০ টাকা ছিনিয়ে নেয়। উপায়ন্তুর না পেয়ে আমি ডাক চিৎকার করলে পার্শ্ববতর্ী নুরু মিয়া ও মতিয়ার রহমান এগিয়ে এসে এ ঘটনার প্রতিবাদ করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মাদকসেবী ফয়সাল প্রথমে নুরু মিয়াকে বুকে ও পিঠে ছুরিকাঘাত করে। পরে একই ভাবে মতিয়ার কে বুকে ছুরিকাঘাত করে।

আহত নুরু মিয়ার অবস্থা আশংকাজনক বলে জানিয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. শরিফুল ইসলাম।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে নাগরপুর থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) আলম চাঁদ জানান, এ ঘটনায় এখনো লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তবে দোষিদের গ্রেফতারে পুলিশ মাঠে কাজ করছে।