ছবির এক গানের জন্য খরচ ৭০ লাখ টাকা

‘মেকআপ’ ছবির একটি দৃশ্য।

‘মেকআপ’ একজন সুপারস্টারের গল্প। যিনি মেকআপের আড়ালে হারিয়ে ফেলেছেন বাবা আর স্বামীর পরিচয়। মেকআপ তাঁকে বাবা ডাক শোনা থেকে দূরে রেখেছে। এ মন্তব্য তরুণ নির্মাতা অনন্য মামুনের। পরবর্তী চলচ্চিত্র ‘মেকআপ’ নিয়ে জানালেন, লাইট ক্যামেরায় বন্দী রুপালি পর্দার তারকাদের জীবন। ক্যারিয়ারের স্বার্থে তাঁরা ব্যক্তিগত জীবনের অনেক সত্য লুকিয়ে রাখেন। শুধু ক্যারিয়ারের কথা ভেবে সংসারজীবন পর্যন্ত আড়াল রাখেন। দিন শেষে মেকআপ তুলে সবাইকে ফিরতে হয় আপন ঠিকানায়। যেখানে মেকআপ থাকে না, থাকে শুধু সত্য। এ গল্পগুলো হলিউড, বলিউড, ঢালিউড—সব জায়গার এই সুতায় গাঁথা।

তারকাদের ক্যামেরার পেছনের জীবন নিয়ে পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘মেকআপ’-এর ৭০ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। এর চিত্রধারণ হয়েছে সুনামগঞ্জ, মানিকগঞ্জ ও ঢাকার বিভিন্ন জায়গায়। ভারতের হায়দরাবাদের রামোজি ফিল্ম সিটিতেও কাজ হয়েছে। এখন ডাবিং চলছে। সেসব সেরে ১৫ নভেম্বর ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দেওয়ার ইচ্ছা পরিচালক অনন্য মামুনের। প্রথম আলোকে তিনি বললেন, ‘শিগগিরই কাজ শেষ করে আমরা চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডে জমা দেব। ছবিটি বাংলা এবং হিন্দি দুই ভাষাতেই করা হয়েছে। বাংলাদেশে বড় পর্দায় মুক্তি দেওয়ার পাশাপাশি ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে মুক্তি দেওয়া হবে।’