চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার জামিন শুনানি বৃহস্পতিবার

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাত বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন শুনানির জন্য বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) দিন ঠিক করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।সেদিন আপিল বিভাগের পূনার্ঙ্গ বেঞ্চে জামিন শুনানি হবে।

সোমবার (২৫ নভেম্বর) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে ৫ সদস্যর বেঞ্চ এ দিন নির্ধারন করেন।

এসময় দুদকের পক্ষে ছিলেন খুরশীদ আলম খান এবং আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে ছিলেন খন্দকার মাহবুব হোসেন, মওদুদ আহমদ ও জয়নুল আবেদীন।

এদিন বেগম জিয়ার মামলাকে ঘিরে আপিল বিভাগে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। আদালত প্রাঙ্গনে প্রবেশে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। পরিচয় নিশ্চিত না হয়ে কাউকে কোর্টে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি।

এসময় আপিল বিভাগে এ মামলায় জামিন পাওয়ার প্রত্যাশা করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবিরা অন্যদিকে জামিন খারিজের আদেশ বহাল থাকার প্রত্যাশা দুদকের আইনজীবীর।

উল্লেখ্য, গত ১৪ নভেম্বর এ মামলায় কারাদণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন চেয়ে করা হাইকোর্টের খারিজ আদেশের বিরুদ্ধে আপিল আবেদন করেন তার আইনজীবীরা।

আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় ১৪শ’ এক পৃষ্ঠার আপিল আবেদন দাখিল করা হয়।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালের ৮ আগস্ট তেজগাঁও থানায় জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা করা হয়। ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগে মামলাটি করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

তদন্ত শেষে ২০১২ সালে খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় দুদক। ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ খালেদাসহ চার আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত। সাক্ষ্যগ্রহণ কার্যক্রম শেষ হলে দুদকের পক্ষে এই মামলায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণা করা হয়।