চুনারুঘাটে পুলিশ-বিজিবি’র পৃথক অভিযানে গাঁজা উদ্ধার; নারীসহ আটক ৫

এম এস জিলানী আখনজী, চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাট থানা পুলিশ ও বিজিবি’র পৃথক অভিযানে সাড়ে ১৮ কেজি গাঁজা উদ্ধার। একটি মাইক্রো লাইটেসে করে গাঁজা পাচারের সময় পুলিশি অভিযানে আলী আশরাফ লিটন এবং সাব্বির মিয়া নামের দু’জনকে আটক করে চুনারুঘাট থানা পুলিশ। আটককৃতরা হলেন উপজেলার বনগাও গ্রামের মৃত আঃ আউয়ালেন ছেলে আলী আশরাফ লিটন ও সৈয়দ উল্লার ছেলে সাব্বির মিয়া।

শনিবার (৭ নভেম্বর) দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চুনারুঘাট থানার এস আই রাজনের নেতৃত্বে এস আই ভূপেন্দ্র চন্দ্র, এ এস আই মাহমুদ হাসান, এ এস আই রবিউলসহ সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যরা অভিযান চালিয়ে চুনারুঘাট মধ্য বাজারস্থ পূবালী ব্যাংকের সামনে লাইটেসটির গতি রোধ করে তল্লাশি করলে ৮ কেজি গাঁজাসহ তাদেরকে আটক করা হয়।

এদিকে হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার সাদ্দাম বাজার থেকে সিএনজি রিজার্ভ করে চুনারুঘাট যাওয়ার কথা বলে গাড়ীতে উঠেন উপজেলার ইকরতলী গ্রামের মৃত হারুন মিয়ার স্ত্রী মাজেদা খাতুন (৪৫) তার সাথে একই সিএনজিতে উঠেন উপজেলার বড়াইল গ্রামের ছহিব উল্লাহর ছেলে জাবেদ মিয়া (২২) ও ডুলনা গ্রামের মৃত রজব আলীর পুত্র আলী হোসেন ( ২৩)। তাদের বেশ ও সরঞ্জামাদি দেখলে মনে হবে তারা যেন কোথাও বেড়াতে যাচ্ছেন।

বিজিবির নিজস্ব গোয়েন্দা সংস্থা বিজিবি ৫৫ ব্যাটেলিয়ান গুইবিল বিওপিকে বিষয়টি জানালে তারা উপজেলার ছয়শ্রী গ্রামে একই দিন সকালে অভিযান চালিয়ে সাড়ে় দশ কেজি গাঁজা ও নারীসহ ৩ জনকে আটক করেন। বিজিবির অভিযানে নেতৃত্ব দেন গুইবিল বিওপি কমান্ডার হাবিলদার আঃ রশিদ।

এ দু’টি ঘটনায় পুলিশ ও বিজিবি’র পক্ষ থেকে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।