চুকনগরে হালিমা নার্সিং হোম এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে প্রসুতির ভুল অপারেশনে নবজাতকের মৃত্যু

জাহাঙ্গীর আলম (মুকুল), ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি: স্বাস্থ্য বিধি লঙ্ঘন করে চলছে প্রাইভেট হাসপাতাল ক্লিনিক। ডুমুরিয়ার চুকনগর হালিমা নার্সিং হোম এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে প্রসুতির ভুল অপারেশনে এক নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে। এঘটনায় ভুক্তভোগী হেলাল উদ্দীন বাদী হয়ে ডুমুরিয়া থানায় একটি এজাহারের আবেদন করেছেন। শুক্রবার পুলিশ ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছেন।

গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে উপজেলার চুকনগর হালিমা মেমোরিয়াল নার্সিং হোম এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এঘটনা ঘটে। অভিযোগ ও ভুক্তভোগী সুত্রে জানাগেছে, কেশবপুর উপজেলার চুয়াডাঙ্গা গ্রামের হেলাল উদ্দিন গাজীর স্ত্রী ইয়াসমিন খাতুন (২০) প্রসাব বেদনা শুরু হলে তাকে ২৯ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার চুকনগর হালিমা মেমোরিয়াল নার্সিং হোম এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভর্তি করেন তার পরিবার। সন্ধ্যার দিকে ওই প্রসুতিকে অপারেশন করেন ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ। কিন্তু অদক্ষ চিকিৎসক দ্বারা প্রসুতিকে অস্ত্রপাচার করা কালে গর্ভে থাকা নবজাতকের পেটের নাভি বরাবর কেটে গিয়ে নাড়িভুড়ি বেরিয়ে আসে। তখন তড়িঘড়ি করে অপারেশন থিয়েটারে ওই নবজাতকের কাটা স্থালে সুগার গ্লু আটা দিয়ে পোস্টিং করে রাখা হয়।

কিন্তু প্রচুর রক্ত ক্ষরণ হয়ে ওই দিন দিবাগত রাত ২ টার দিকে নবজাতকের মৃত্যু হয়। এঘটনায় ভুক্তভোগী নবজাতকের পিতা হেলাল উদ্দিন গাজী বাদী বৃহস্পতিবার ডুমুরিয়া থানায় ভুল চিকিৎসায় পুত্রের মৃত্যুর ঘটনায় ক্লিনিকের সত্ত্বাধিকারী মোঃ কামাল হোসেন সহ অজ্ঞাত সহযোগীদের বিরুদ্ধে একটি এজাহারের আবেদন করেছেন। স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে, ওই ক্লিনিক ইতোপূর্বে ভুল চিকিৎসায় একাধিক ব্যাক্তির মুত্যুর তার বিরোদ্ধে মাললা রয়েছে। ক্লিনিক মালিক কামাল হোসেনের মেবাইল ফোনে যোগাযোগ করে তাকে পাওয়া যায় নি ফলে তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। এপ্রসংগে ডুমুরিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম বিপ্লব জানান,এজাহারের আবেদন পেয়েছি, তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেয়া হবে। ভুল চিকিৎসায় নবজাতকের মৃত্যুর ঘটনায়,উদ্ধোতন কতৃপক্ষের নিকট দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছেন ভুক্তভোগী পরিবার।