চাঁদপুর শহরের যেন চলছে ঈদের কেনা কাটা; লকডাউন মানছে কেউ

মোহাম্মদ বিপ্লব সরকার, চাঁদপুর প্রতিনিধিঃ সারা বিশ্বে করোনা ভাইরাস মহামারি আকার ধারন করেছে। পুরো বিশ্ব আজ স্তব্দ।প্রতিনিয়তই করোনা রোগে আক্রান্ত হয়ে বহু মানুষ পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেছে।এর প্রভাব চাঁদপুরেও রয়েছে।চাঁদপুর জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন।পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে চাঁদপুর শহরে যেন করোনা নামক একটা বৈশ্বিক মহামারি আছে একথা যেন কারো জানা নেই।সকাল হলেই বিশেষ করে নারী ক্রেতারা ঈদের কেনাকাটা করতে পুরো শহর চষে বেরাচ্ছে।

অধিকাংশ মার্কেট বন্ধ থাকলেও দু একটি মার্কেটের কিছু সংখক ব্যবসায়ি প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে চুরি চোট্টামি করে তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রেখে বেচা বিক্রি করে যাচ্ছে। বিশেষ করে চাঁদপুর রেলওয়ে হকার্স মার্কেটের ব্যবসায়ি সমিতির সভাপতি ও সম্পাদক সকল ব্যবসায়িকে প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখতে বলা হলে ও কিছু অসাধু ব্যবসায়ি দোকান খুলা রেখে পণ্য সামগ্রী বিক্রি করে যাচ্ছে।

সাকাল থেকে শহরের কালিবাড়ি শপথ চত্বর মোড়ে, মুক্তিযুদ্ধা সড়ক, কালিবাড়ি মন্দির, নিউ মার্কেটে নারী ক্রেতাদের বিচরন পরি লক্ষিত হয়।তাছাড়া শহরের রাস্তার পাশে কিংবা ফুটপাতের দোকান গুলোতে নারী ক্রেতারা হুমরি খেয়ে পরছে। তবে এসব দোকান গুলোতে মধ্যবিত্ত আর নিম্ম মধ্যবৃত্ত পরিবারের লোকদের কেই ঈদের কেনা কাটা করতে দেখা যাচ্ছে।তাদের মধ্যে বিশ্বে যে করোনা ভয়াবহ আকার ধারন করে মানুষের জীবন বিপন্ন করে দিচ্ছে সেই খেয়াল নেই বললেই চলে।

জুতার দোকান, কাপড়ের দোকান, কসমেটিক্স দোকানসহ সব ধরনের দোকানেই ক্রেতা সাধারন প্রবেশ করছে।আর দোকানিরা প্রশাসনের সাথে যেন কানামাছি খেলা খেলছে।এতে করে চাঁদপুর শহরে করোনা রোগীর সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।