চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে ৫২ কেন্দ্রে ৩০৫ টি ব্যুথ চুড়ান্ত ॥ ভোটার ১ লাখ ১৬ হাজার ৪শ ৮৭ জন

মোহাম্মদ বিপ্লব সরকার, চাঁদপুর প্রতিনিধিঃ আগামী ১০ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন। আর নির্বাচন ঘিরে চলছে তুমুল প্রচারণা। নির্বাচনের বাকি আছে মাত্র ৪ দিন। পৌরসভার মেয়র পদে ৩ জন, ১৫টি ওয়ার্ডের ১৫ জন সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৫০ জন ও ৫ জন মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৪সহ মোট ২১ টি পদে ৬৭ জন প্রার্থী চূড়ান্ত ভোট যুদ্ধে নেমেছেন। ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ করা হবে এ নির্বাচনে।

প্রার্থীরা সকাল থেকে শুরু করে গভীর রাত পর্যন্ত নানা প্রতিশ্রুতি ফুলঝুড়ি় নিয়ে় ছুটছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। এই প্রথম চাঁদপুর পৌরসভায় দলীয় প্রতীকে আর ইভিএম পদ্ধতিতে নির্বাচন হতে যাচ্ছে। প্রত্যাশার চেয়ে় বেশি জমজমাট হয়ে় উঠেছে চাঁদপুর পৌর নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা। সর্বত্র ছেয়ে গেছে ব্যানার, ফেস্টুনে। শহরের যে দিকে দৃষ্টি যাচ্ছে সে দিকেই প্রার্থীদের পোষ্টার আর ব্যানার ছাড়া আর কিছুই দেখা যাচ্ছেনা। শহরে যেন নির্বাচনী আমেজ বিরাজ করছে।

মেয়র পদে প্রতিদ্বন্ধিতাকারী ৩ প্রার্থী হলেন, আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী এডভোকেট জিল্লুর রহমান জুয়েল (নৌকা), বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আক্তার হোসেন মাঝে (ধানের শীষ) এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মনোনীত প্রার্থী মামুনুর রশিদ বেলাল (হাতপাখা)।

সকল প্রার্থীরা এখন ভোটের মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা এখন তুঙ্গে। মহামারী করোনার কথা ভুলে গিয়ে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু এখন পৌর নির্বাচন। প্রত্যাশার চেয়ে বেশি জমজমাট হয়ে উঠেছে চাঁদপুর পৌর নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা। সর্বত্র ছেয়ে গেছে ব্যানার, ফেস্টুনে।

চাঁদপুর পৌরসভার ভোটার সংখ্যা ১লাখ ১৭ হাজার ৮শ’৮৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫৯ হাজার ২৭জন। মহিলা ভোটার ৫৮ হাজার ৮শ’৫৯ জন। ১৫টি ওয়ার্ডে ভোট কেন্দ্র রয়েছে ৫২ টি। এসব ভোটারগন ৫২ টি কেন্দ্রের ৩০৫ টি ব্যুথে সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ভোট প্রদান করবে। ৫২ টি কেন্দ্রের জন্য ৫২ জন প্রিজাইডিং অফিসার ও ৩০৫ টি ব্যুথের জন্য ৩০৫ জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং প্রতি ব্যুথে ২ জন করে মোট ৬১০ জন পোলিং অফিসার দায়িত্ব পালন করবে।