চাঁদপুর জেলায় এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত ১৪, মৃত ২

 মোহাম্মদ বিপ্লব সরকার, চাঁদপুর প্রতিনিধি:  চাঁদপুর জেলায় এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হিসেবে ১৪ জন শনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ২জন মারা যাওয়ার পর করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন। শনাক্তকৃতদের মধ্যে এখন পর্যন্ত ২জন পুরোপুরি সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন। অন্য একজনের দ্বিতীয় টেস্ট নেগেটিভ এসেছে। তৃতীয় টেস্টে নেগেটিভ হলে তিনিও সুস্থ বিবেচিত হয়ে বাসায় ফিরতে পারবেন।
অর্থাৎ বর্তমানে চিকিৎসাধীন ১০জন। চাঁদপুরের সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে আজ এসব তথ্য জানা গেছে। সূত্র আরো জানায়, চাঁদপুর জেলায় এখন পর্যন্ত মোট ২৬১ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে রিপোর্ট এসেছে ২৪০ জনের।এর মধ্যে করোনা পজেটিভ ১৪ জন ও নেগেটিভ ২২৬জনের রিপোর্ট। রিপোর্ট অপেক্ষমান ২১জনের। সূত্র জানায়, মারা যাওয়া একজন হচ্ছেন মতলব উত্তরের ফয়সাল।
তিনি চাঁদপুর সদর উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের কামরাঙ্গা এলাকায় শ্বশুর বাড়িতে আক্রান্ত অবস্থায় মারা যান। অন্যদিকে ফরিদগঞ্জের কিশোরী শারমিন চাঁদপুর সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এখন পর্যন্ত পূর্ণাঙ্গভাবে সুস্থ হয়েছেন মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার ডা. মেহেদী হাসান এবং একই উপজেলার জামাই সুজন। অবশ্য সুজনের নিজের বাড়ি রংপুরে। শ্বশুর বাড়িতে থাকা অবস্থায় করোনায় আক্রান্ত হিসেবে সনাক্ত হন তিনি।
তিনিই চাঁদপুর জেলায় প্রথম সনাক্ত হওয়া করোনা রোগী। অন্যদিকে ফরিদগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন ল্যাব টেকনোলজিস্ট করোনা সনাক্ত হওয়ার পর তার দ্বিতীয় টেস্ট নেগেটিভ হয়েছে। অর্থাৎ করোনার উপস্থিতি নেই তার শরীরে। তৃতীয় দফায় টেস্ট করা হবে তার। সেখানে নেগেটিভ আসলে তাকে ছেড়ে দেওয়া হবে। সিভিল সার্জন অফিস সূত্র আরো জানায়, বিদেশ ফেরত এবং ঢাকা নারায়ণগঞ্জসহ আরো কিছু জেলা থেকে চাঁদপুর জেলায় আসা লোকদের হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হচ্ছে। তাদের মোট সংখ্যা ৩৪৩৮জন। বর্তমানে আছে মোট ৬৭১জন। অন্যরা হোম কোয়ারেন্টিন শেষে মুক্ত।