চাঁদপুরে জনগনকে ঘরে থাকতে সতর্ক করছে আইন শৃঙ্গলা বাহিনী

মোহাম্মদ বিপ্লব সরকারঃ বিশ্ব জুরে চলছে নোবেল করোনা ১৯ভাইরাসের মহামারি। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে বহু মানুষ এ পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেছে। নোবেল করোনা ভাইরাসের আঘাত বাংলাদেশে ও প্রভাব পরতে শুরু করেছে। ইতিমধ্যে বাংলাদেশে ৭০ জন এ রোগে আক্রান্ত হয়েছে।দেশবাসীকে করোনা থেকে রক্ষা করতে প্রধান মন্ত্রী ব্যাপক পদক্ষেপ নিয়ে সেনা বাহিনী সকল জেলায় মোতায়ন করেছে। চাঁদপুর জেলার ৮টি উপজেলা সেনা বাহিনীর সদস্যদের কে ৩টি টামে গঠিত করে মোতায়ন করা হয়েছে।

এ টিম গুলো চাঁদপুর সদর, হাইমচরও ফরিদগঞ্জে একটি, মতলব উত্তর ও মতলব দক্ষিণে একটি এবং হাজীগঞ্জ,শাহরাস্তি ও কচুয়ায় একটি টিম জনগনকে সচেতন করে বিনাকারনে ঘরে থেকে বের না হতে মাইকিং,লিফলেট বিতরন করে যাচ্ছে। শনিবার দুপুরে চাঁদপুর সদরের ভুমি কর্মকর্তা ইমরান হোসাইন সজিব ও সেনা বাহিনীর কর্ণেল ইসফাক আহমেদের নেতৃত্বে টহল শহরের বাস স্টেশন, কালিবাড়ি মোড়,পালবাজার ও পুরান বাজার এলাকায় করোনার সচেতনতার প্রচার প্রচারনা করে জনগনকে ঘরে থাকার অনুরোধ করেন।

ইমরান হোসাইন সজিব জানান,আমরা জেলা প্রশাসনের নির্দেশে জনগনকে শতর্ক করছি। করোনা হলো একটি মহামারী ভাইরাস। এ রোগে আক্রান্ত হলে দেশের বড় ধরনের ক্ষতি হবে। বহু মানুষের প্রাণ হানি হতে পারে। তাই আমরা জনগনকে সতর্ক করে দিচ্ছি যেন,কোনো কারণে কেউ ঘর থেকে বের না হয়।

কর্ণেল আসফাক আহমেদ বলেন,প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশে আমরা সারা দেশে কাজ করে যাচ্ছি। জনগন যদি সচেতন হয় তাহলে আমরা করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি পেতে পারি। এসময় মাক্স ব্যাবহার না করায় বিভিন্ন ব্যক্তি ও দোকানিদের কাছ থেকে ৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।