চাঁদপুরে গর্ত খুঁড়ে গাঁজা উদ্ধার করলেন সহকারী পরিচালক এ কে এম দিদারুল আলম

মোহাম্মদ বিপ্লব সরকার, চাঁদপুর প্রতিনিধি: চাঁদপুরে মাদক ব্যবসায়ীর বাসার ভেতরের মাটির নিচে লুকিয়ে রাখা গাঁজা গর্ত খুঁড়ে উদ্ধার করলেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চাঁদপুরের সহকারী পরিচালক এ কে এম দিদারুল আলম।

১ জুন সোমবার দুপুরে শহরের ক্লাব রোড এলাকার টিলাবাড়ীতে অভিযান চালিয়ে এই গাঁজা উদ্ধার করা হয়।এ সময় মাটির নীচে পলিথিনের ব্যাগে করে পুঁতে রাখা প্রায় ৪’শ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চাঁদপুর কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, দেশের বর্তমান ভয়াবহ করোনা মহামারিতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কর্তৃক ঘোষিত ১০ দিন ব্যাপী মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযানের ৮ম দিনে এ গাঁজা উদ্ধার করা হয়েছে।এ সময় মাদকসম্রাজ্ঞী কামরুন নেছা(৪২) কে আটক করা হয়। পরে তার দেহ তল্লাশি চালিয়ে আরো ৫৯ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়েছে।

জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চাঁদপুর কার্যালয় সূত্রে আরো জানা যায়, গাঁজা ও ইয়াবাসহ আটক কামরুন নেছা স্থানীয় শুক্কুর আলীর স্ত্রী। তার এই রমরমা মাদক ব্যবসার অপর সহযোগী মোঃ সেলিমের ছেলে মোঃ মিলন(৩০) পলাতক রয়েছে। তারা ৩নং কয়লাঘাট এলাকায় তাদের বাড়ীতে থেকে এই অবৈধ মাদক ব্যবসা পরিচালনা করতো বলে অভিযোগ ছিলো।

এ অভিযান প্রসঙ্গে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চাঁদপুরের সহকারী পরিচালক এ কে এম দিদারুল আলম কে জানান,গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা অভিযান পরিচালনা করেছি।আমাদের উপস্থিতি টের পেয়ে মোঃ মিলন পালিয়ে যায়।তবে আমরা ওই মাদক ব্যবসায় জড়িত মিলনের সহযোগী কামরুন নেছা কে আটক করেছি।আমরা তার বাড়ী হতে গাঁজা ও দেহ তল্লাশি চালিয়ে ইয়াবা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছি।তাদের বিরুদ্ধে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় নিয়মিত মাদক মামলা দায়ের করা হয়েছে।আমাদের এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এদিকে অভিযান পরিচালনাকালে ঘটনাস্থলে মাদকব্যবসায়ীদের ফাঁশির দাবীতে সচেতন এলাকাবাসী বিক্ষোভ করেছে। এ সময় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চাঁদপুরের পরিদর্শক, উপ-পরিদর্শক, সহকারী উপ-পরিদর্শক এবং সিপাইগণ অভিযানে অংশ নেন।