চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে ৯ গ্রামে ঈদুল আজহার জামাত অনুষ্ঠিত

মোহাম্মদ বিপ্লব সরকার,  চাঁদপুর প্রতিনিধি: চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ উপজেলার ৯ গ্রামে ঈদুল আযহার আগাম জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৩১ জুলাই শুক্রবার সকাল ৮ থেকে ৯টার মধ্যে এসব গ্রামের মসজিদে জামাত স্বাস্থ্য বিধি মেনে সম্পন্ন হতে দেখা যায়।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, হাজীগঞ্জ উপজেলার সাদ্রা, সমেশপুর, অলিপুর, বলাখাল, মনিহার, জাঁকনি, প্রতাপপুর, গোবিন্দপুর, দক্ষিণ বলাখাল গ্রামে সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে ঈদ উদর্যাপন করা হয়েছে।বিগত ৮৬ বছর ধরে এসব গ্রামের বেশীরভাগ মুসলিমরা সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ধর্মীয় অনুষ্ঠানগুলো পালন করে আসছেন।

তবে করোনা ভাইরাসের কারণে এবার ঈদগাহে নামাজ না পড়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মসজিদে মসজিদে ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়।জানা যায়, ইসলামের চার মাজহাবের মধ্যে হানাফি মাজহাবের অনুসারীরা সৌদি আরবের সঙ্গে বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠান উদযাপন করে আসছে। হাজীগঞ্জ উপজেলার বড়কুল পশ্চিম ইউনিয়নের সাদ্রা হামিদিয়া দাখিল মাদ্রাসার সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা ইছহাকের মৃত্যুর পর থেকে তার ৬ ছেলে এ মতবাদের প্রচার চালিয়ে আসছেন।

এদের মধ্যে তার বড় ছেলে আবু যোফার মোহাম্মদ আবদুল হাই সাদ্রাভী অন্যতম। তার মৃত্যুর পর তার নাতি আলহাজ্ব হযরত মাওলানা মুফতি আরিফ চৌধুরী এ মতবাদের প্রচার করে আসছে। এ বিষয়ে আলহাজ হযরত মাওলানা মুফতি আরিফ চৌধরী বলেন, আমরা এবার স্বাস্থ্য বিধি মেনে ঈদের জামাত পালন করার চেষ্টা করেছি। আজকের গণজামাত শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সম্পন্ন করতে পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতায় আমরা কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।