চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে গায়ে আগুন দিয়ে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা

মোহাম্মদ বিপ্লব সরকার, চাঁদপুর প্রতিনিধি : চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে কেরোসিন তৈল ঢেলে গায়ে আগুন দিয়ে এক স্কুল ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। ২৯ মে শুক্রবার দুপুরের ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই ছাত্রী নিহত হয়।

নিহত ছাত্রী নাসরিন আকতার চাঁদনী উপজেলার সদর ইউনিয়নের সপ্তগ্রাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে চলতি বছর বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিল। তার বাবা আনোয়ার হোসেন কাতার প্রবাসি। ১ ভাই ২ বোনের মধ্যে চাঁদনী দ্বিতীয়। নিহত চাঁদনীর চাচা পুলিশের এসআই আরিফ জানান, চাঁদনী দুপুরে হাসাপাতালে চিকিৎসাধিন মারা গেছে। পরে শাহবাগ থানায় জিডি করেছি।

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পরেণ করা হয়েছে। নিহত চাদনীর দাদী জানান, চাঁদনীর বাবা আনোয়ার হোসেন কাতার করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তার ২টি কিডনী অচল। এ অবস্থায় বাড়ীতে ফোনও করতে পারছেনা। ৩/৪দিন পর একবার কথা বলে। সরকারি ত্রাণ সহায়তায় তাদের পরিবারটি চলে। বাবার খুবই আদরের মেয়ে ছিল চাঁদনী।

বাবার কথা চিন্তা করেই হতাশাগ্রস্থ থেকে আত্মহত্যা করেছে। এ বিষয়ে হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আলমগীর হোসেন রনি জানান, চাঁদনী নামের একটি মেয়ে গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। বাবার বাড়িতেই এক ঘরে মেয়েটি গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে জেনেছি। তবে পুলিশ পাঠিয়েছি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।