চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে ধর্ষণের পর নারীকে গলাকেটে হত্যা

মোহাম্মদ বিপ্লব সরকার, চাঁদপুর প্রতিনিধি: চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে অঞ্জলী দাস (৫৫) নামে এক নারীকে ধর্ষণের পর গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। খবর পেয়ে মঙ্গলবার রাতে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে। উপজেলার ৬নং গুপ্টি পশ্চিম ইউনিয়নের খাজুরিয়া গ্রামের ধোপা বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত অঞ্জলী দাস খাজুরিয়া গ্রামের ধোপা বাড়ির প্রয়াত ইন্দ্রজিৎ দাসের বিধবা স্ত্রী। স্থানীয়রা জানায়, অঞ্জলী দাসের ছোট বোন পূর্ণিমা ও বোন জামাতা খোকন লক্ষ্মীপুর থেকে খাজুরিয়া মঙ্গলবার বিকালে বোনের বাড়িতে বেড়াতে আসেন। সেখানে এসে ঘরের দরজায় তালা মারা দেখতে পান। কোথায় গেছে এই বিষয়ে আশপাশের লোকজনের কাছে জানতে পারেন সোমবার দুপুরের পর থেকে ঘরের দরজা তারা বন্ধ দেখতে পায়।
পরে ঘরের জানালা দিয়ে উঁকি দিয়ে ঘরের ভেতরে বিছানার উপর অঞ্জলীর রক্তাক্ত মৃতদেহ দেখতে পান। ইন্দ্রজিৎ গত এক বছর পূর্বে মারা যান। স্থানীয় ইউপি সদস্য শাহআলম জানান, সংবাদ পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে গ্রাম পুলিশ পাঠিয়েছেন। লাশের অবস্থান দেখে মনে হয়েছে, দুর্বৃত্তরা ওই নারীকে ধর্ষণের পর গলাকেটে হত্যা করেছে। এ ব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার ওসি আব্দুর রকিব জানান, গলাকেটে হত্যার ঘটনা শুনে তারা ঘটনাস্থলে গিয়েছেন। লাশ উদ্ধার করে পোস্টমর্টেমের জন্য পাঠানো হবে।