চাঁদপুরের পিসিআর ল্যাবে প্রথম দিনে ২১ জনের করোনা  পরীক্ষা

মোহাম্মদ বিপ্লব সরকার, চাঁদপুর প্রতিনিধি: চাঁদপুরে করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য স্থাপিত পিসিআর ল্যাবে শুরু হয়েছে নমুনা পরীক্ষা। প্রথম দিন ২১ জনের নমুনা পাওয়ার পর তা পরীক্ষা করেছে ল্যাবটি।

মঙ্গলবার রাতেই রিপোর্টগুলো ঢাকা এবং স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগের কাছে দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন চাঁদপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডাঃ জামাল সালেহ উদ্দীন আহমেদ। তিনি জানান, আজ নমুনা এসেছে শুধুমাত্র সদর হাসপাতাল থেকে।

উপজেলাগুলোতে আজ নমুনা সংগ্রহ করা হয়নি, সে কারণে ২১টি নমুনা আমাদের কাছে এসেছে। আমরা রাতের মধ্যেই রিপোর্ট পাঠিয়ে দিবো সংশ্লিষ্টদের কাছে। উল্লেখ্য, চাঁদপুর শহরের নতুনবাজারস্থ কদমতলা এলাকায় ভাষাবীর এমএ ওয়াদুদ মেমোরিয়াল ট্রাস্টের নামে বরাদ্দকৃত ফ্ল্যাটে এ পরীক্ষাগারটি স্থাপন করা হয়েছে। এ ল্যাবটি স্থাপনে অর্থায়ণ করেছে শিক্ষামন্ত্রী ডা দীপু মনির বাবার নামে প্রতিষ্ঠিত ‘ভাষাবীর এমএ ওয়াদুদ মেমোরিয়াল ট্রাস্ট।

আর এটি পরিচালনা করছে চাঁদপুর মেডিকেল কলেজ। সোমবার ল্যাবটি উদ্বোধন করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, এ ল্যাবরেটরীতে পিসিআর মেশিনসহ পরীক্ষার জন্য সকল যন্ত্রপাতি স্থাপন করা হয়েছে। এ পরীক্ষাগারে চট্রগ্রাম ভেটেরিনারী ও অ্যানিমেল সাইন্সেস বিশ^বিদ্যালয় (সিভাসু) থেকে ৭ জন কর্মকর্তা এক মাসের জন্য নিয়োগ দেয়া হয়েছে। ৭ জন হচ্ছেন সিভাসুর পিআরটিসির বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডাঃ ত্রিদিপ দাস (টিম লিডার), ডাঃ চন্দন নাথ, ডাঃ মোক্তাদির বিল্লাহ রেজা, ডাঃ সাদিয়া জিন্নুরাইন, ডাঃ আবু জোবায়ের তানজিন, ডাঃ রায়হান খান নাঈম ও রাজিয়া সুলতানা।

চাঁদপুর মেডিকেল অধ্যক্ষ প্রফেসর ডাঃ জামাল সালেহ উদ্দীন আহমেদ বলেন, আমাদের মেশিনে প্রতিদিন ১০০ টেস্ট করতে পারবো। তবে যদি কোনদিন একশ’র বেশি বা ২০০ নমুনা সংগ্রহ হয়, সেক্ষেত্রে আমরা তা দুই শিফটে পরীক্ষা করবো। যারা নমুনা দেবেন তারা দিনে দিনেই রিপোর্ট পেয়ে যাবেন। তিনি জানান, ইতোমধ্যেই সদর হাসপাতাল ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ যেসব স্থানে নমুনা সংগ্রহ হচ্ছে সেখানেই যথারীতি নমুনা সংগ্রহ হবে তারা নমুনাগুলো এই ল্যাবে পাঠাবে এখানে নমুনা সংগ্রহ হবে না শুধু পরীক্ষা করা হবে।

চাঁদপুর মেডিকেল কলেজ অধ্যক্ষের বলেন, এখানে শুধুমাত্র যে কোভিড-১৯ পরীক্ষা হবে তা নয়। এক সময় ভাইরাসটি চলে গেলেও আরও নতুন নতুন যেসব ভাইরাসের আবির্ভাব হবে সেগুলোর পরীক্ষাও ল্যাবে করা যাবে। এছাড়া ডিএনএ, আরএনএ টেস্টসহ মানব দেহের আরো জটিল পরীক্ষাগুলো এখানে করা যাবে। তিনি জানান, এই ল্যাবটি স্থাপনে চাঁদপুর মেডিকেল কলেজের জন্যে অনেক বড় সাফল্য এবং সহায়ক হয়ে গেলো। এখানে প্রশিক্ষণ নেয়ার জন্যে একটি টিম তিনি গঠন করেছেন বলে জানান।