চলে গেলেন এন্ড্রু কিশোর না ফেরার দেশে

“ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে,
রইবো না আর বেশিদিন তোদের মাঝে রে!”

আরেকটি নক্ষত্রের বিদায়। জীবন যুদ্ধের পরাজিত প্রিয় এন্ড্রু কিশোর , শেষ পর্যন্ত ক্যান্সার এর কাছে হার মেনেছেন। বেশিদিন হয় নি, খুব গোপনে সিঙ্গাপুর থেকে দেশে এসেছেন। রাজশাহীর নিজ বাড়িতেই ছিলেন ক্যান্সার এর কাছে পরাজিত এ কণ্ঠশিল্পী।

দেশের সংগীত পুরস্কার আর শিল্পীদের মাঝে ১ম কাতারের একজন। প্রচলিত ধারার বাইরের একজন গায়ক।

ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে নয় মাস ধরে ভুগছিলেন তিনি। বিদেশ থেকে চিকিৎসা নিয়ে ফিরে ছিলেন রাজশাহীতে চিকিৎসক বোনের বাড়িতে।

সেখানে সোমবার সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয় বলে সংবাদ গনমাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ।

এন্ড্রু কিশোরের বয়স হয়েছিল ৬৪ বছর। তিনি স্ত্রী লিপিকা এন্ড্রু ও দুই সন্তান রেখে গেছেন।

তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এক শোকবার্তায় শেখ হাসিনা বলেছেন, এন্ড্রু কিশোর তার গানের মাধ্যমে মানুষের হৃদয়ে স্মরণীয় হয়ে থাকবেন।