চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সিটি হল করোনা আইসোলেশন সেন্টার

মোঃ রাশেদ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক নগরীর আগ্রাবাদে প্রতিষ্ঠিত ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সিটি হল করোনা আইসোলেশন সেন্টারে আগামী রোববার (২১ জুন) থেকে রোগী ভর্তি কার্যক্রম শুরু হবে বলে জানিয়েছেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন।

ইতোমধ্যে হাসপাতালের অবকাঠামোগত সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। হাসপাতালে দায়িত্ব পালনকারী চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীরা কর্মস্থলে যোগ দিয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার কাজে যোগদানকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিয়ে আইসোলেশন সেন্টারে মত বিনিময়কালে মেয়র এসব কথা বলেন। দায়িত্ব পালনকারীদের উদ্দেশে মেয়র বলেন, আইসোলেশন সেন্টারে দায়িত্ব পালনকারী স্থায়ী-অস্থায়ী সকলকে সমবেতন, সরকারি প্রণোদনা প্রদানসহ যাবতীয় সুরক্ষা ও সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করা হবে।

তাছাড়া চাকুরি স্থায়ীকরণ করার সময় আইসোলেশন সেন্টারে দায়িত্ব পালনকারী অস্থায়ী কর্মকর্তা কর্মচারীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে। যারা প্রশিক্ষণ নিয়ে এখানে সেবা দিতে উদ্যোগী হয়েছেন তাদের সাধুবাদ জানিয়ে মেয়র বলেন, চসিকের স্বাস্থ্য বিভাগের প্রশিক্ষিত করোনাভাইরাস মোকাবেলায় নিয়োজিত সম্মুখ যোদ্ধাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় নিরাপত্তাসহ বর্ধিত বেতন ও ঝুঁকিভাতা প্রদান এবং সরকারি প্রণোদনা প্রাপ্তির সব ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে।

তিনি আশা করেন, করোনা শনাক্তরা যাতে এ আইসোলেশন সেন্টার থেকে উপযুক্ত ও যথাযথ সেবা পান, সে ব্যাপারে দায়িত্বরত কর্মকর্তা, চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীরা সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে মানবিক ও সামাজিক দায়িত্ব পালনে সচেষ্ট হয়ে সারাদেশে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবেন।

এ সময় চসিকের শিক্ষা-স্বাস্থ্য স্ট্যান্ডিং কমিটির সভাপতি কাউন্সিলর নাজমুল হক ডিউক, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আকতার চৌধুরী, সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. প্রীতি বড়ুয়া, আইসোলেশন সেন্টার পরিচালক ডা. সুশান্ত বড়ুয়া, ডা. মোহাম্মদ আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।