চট্টগ্রাম শুলকবহর ৮ নং ওয়ার্ডের শ্বাসকষ্টের রোগীদের অক্সিজেন সিলিন্ডার ও অ্যাম্বুল্যান্স সেবা দিচ্ছেন কাউন্সিলর মোরশেদ মোঃরাশেদ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ চারদিকে অক্সিজেনের হাহাকার, বেসরকারি হাসপাতালে রোগী ফেরতের হিড়িক। কেউ কেউ মারা যাচ্ছে রোগীর গাড়িতেই। এমন দুঃসময়ে ৮ নম্বর শুলকবহর ওয়ার্ডের শ্বাসকষ্টের রোগীদের বিনামূল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার ও অ্যাম্বুল্যান্স সেবা দেওয়ার ঘোষণা দিলেন কাউন্সিলর মো. মোরশেদ আলম। ১৫ সিলিন্ডার অক্সিজেন, ৩টি অ্যাম্বুল্যান্স, ২ জন চিকিৎসক ও ২ জন টেকনিশিয়ান (অপারেটর), ১০ জন স্বেচ্ছাসেবক দিয়ে বিনামূল্যের এ সেবা চালু করছেন বৃহস্পতিবার (১১ জুন) বিকেল থেকে। কাউন্সিলর মোরশেদ জানান, অনেক বড় এলাকা নিয়ে শুলকবহর ওয়ার্ড। করোনাকালে এলাকার কোভিড, নন কোভিড অনেক রোগীই শ্বাসকষ্টে ভুগছেন। হাসপাতাল থেকে হাসপাতালে ঘুরছেন ভর্তির জন্য। এ সময় নিশ্বাস নিতে রোগীর এত কষ্ট হয় না দেখলে বলে বোঝানো কঠিন। তাই আমি উদ্যোগ নিয়েছি শুলকবহর ওয়ার্ডের শ্বাসকষ্টের রোগীদের বাসা থেকে হাসপাতালে ভর্তি পর্যন্ত আপদকালীন সময়ে অক্সিজেন সিলিন্ডার দেওয়ার। যাতে তারা স্বস্তিতে নিশ্বাস নিতে পারেন। এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, মানবিক তাগিদ থেকে এ উদ্যোগ নিয়েছি। এটা আমার নৈতিক দায়িত্ব। আমরা চিকিৎসক, অভিজ্ঞ অপারেটর দিয়ে বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহ করবো রোগীকে। পাশাপাশি পিপিইসহ সব সুরক্ষা মেনেই রোগীদের হাসপাতালে পৌঁছে দেবো। ইতিমধ্যে ১৫ সিলিন্ডার অক্সিজেন, আনুষঙ্গিক চিকিৎসা সরঞ্জাম, ৩টি অ্যাম্বুল্যান্স জোগাড় করেছি। সেবার পরিধি বাড়লে আরও সিলিন্ডার সংগ্রহ করা হবে। বৃহস্পতিবার (১১ জুন) বিকেল থেকে ০১৮৮৬ ৯৯০ ৯৯০ নাম্বারে ফোন দিয়ে শুলকবহর ওয়ার্ডের শ্বাসকষ্টের রোগীরা অক্সিজেন সিলিন্ডার ও অ্যাম্বুল্যান্স সেবা পাবেন বলে জানান মোরশেদ আলম।

মোঃ রাশেদ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ  চারদিকে অক্সিজেনের হাহাকার, বেসরকারি হাসপাতালে রোগী ফেরতের হিড়িক। কেউ কেউ মারা যাচ্ছে রোগীর গাড়িতেই। এমন দুঃসময়ে ৮ নম্বর শুলকবহর ওয়ার্ডের শ্বাসকষ্টের রোগীদের বিনামূল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার ও অ্যাম্বুল্যান্স সেবা দেওয়ার ঘোষণা দিলেন কাউন্সিলর মো. মোরশেদ আলম। ১৫ সিলিন্ডার অক্সিজেন, ৩টি অ্যাম্বুল্যান্স, ২ জন চিকিৎসক ও ২ জন টেকনিশিয়ান (অপারেটর), ১০ জন স্বেচ্ছাসেবক দিয়ে বিনামূল্যের এ সেবা চালু করছেন বৃহস্পতিবার (১১ জুন) বিকেল থেকে।
কাউন্সিলর মোরশেদ জানান, অনেক বড় এলাকা নিয়ে শুলকবহর ওয়ার্ড। করোনাকালে এলাকার কোভিড, নন কোভিড অনেক রোগীই শ্বাসকষ্টে ভুগছেন। হাসপাতাল থেকে হাসপাতালে ঘুরছেন ভর্তির জন্য। এ সময় নিশ্বাস নিতে রোগীর এত কষ্ট হয় না দেখলে বলে বোঝানো কঠিন। তাই আমি উদ্যোগ নিয়েছি শুলকবহর ওয়ার্ডের শ্বাসকষ্টের রোগীদের বাসা থেকে হাসপাতালে ভর্তি পর্যন্ত আপদকালীন সময়ে অক্সিজেন সিলিন্ডার দেওয়ার।
যাতে তারা স্বস্তিতে নিশ্বাস নিতে পারেন। এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, মানবিক তাগিদ থেকে এ উদ্যোগ নিয়েছি। এটা আমার নৈতিক দায়িত্ব। আমরা চিকিৎসক, অভিজ্ঞ অপারেটর দিয়ে বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহ করবো রোগীকে। পাশাপাশি পিপিইসহ সব সুরক্ষা মেনেই রোগীদের হাসপাতালে পৌঁছে দেবো। ইতিমধ্যে ১৫ সিলিন্ডার অক্সিজেন, আনুষঙ্গিক চিকিৎসা সরঞ্জাম, ৩টি অ্যাম্বুল্যান্স জোগাড় করেছি।
সেবার পরিধি বাড়লে আরও সিলিন্ডার সংগ্রহ করা হবে। বৃহস্পতিবার (১১ জুন) বিকেল থেকে ০১৮৮৬ ৯৯০ ৯৯০ নাম্বারে ফোন দিয়ে শুলকবহর ওয়ার্ডের শ্বাসকষ্টের রোগীরা অক্সিজেন সিলিন্ডার ও অ্যাম্বুল্যান্স সেবা পাবেন বলে জানান মোরশেদ আলম।