গাজীপুরে চিকিৎসক ও নার্সসহ মোট ৫২ জন স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

আশজাদ রসুল সিরাজী, গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডেকেল কলেজ হাসপাতালের এক চিকিৎসক, সিনিয়র নার্স এবং কাপসিয়া উপজেলা হাসপাতালে কর্মরত করোনা নমুনা সংগ্রহকারী দুই ল্যাব, টেকনোলজিস্ট করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

সোমবার সন্ধ্যায় ঢাকার আইইডিসিআর থেকে পাঠানো নমুনার প্রতিবেদনে তাদের আক্রান্ত হওয়ার তথ্য জানা গেছে।

করোনায় আক্রান্ত ওই চিকিৎসক জানান, তিনি শহীদ তাজদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এনেস্থেসিয়া বিভাগে চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত আছেন। পাশাপাশি তিনি গাজীপুর মহানগরীর কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত গ্রীন হাসপাতাল ইনডোর মেডিকেল অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

গত ১৪ এপ্রিল তার এক সহকর্মীর সঙ্গে বেসরকারি ওই হাসপাতালে অপারেশন করার সময় আবাসিক চিকিৎসক উপর্যপরি হাঁচি এবং কাঁশি দিতে থাকলে তাকে অপারেশন থিয়েটার থেকে বের করে দেন তার সহকর্মী। পরে ১৮ এপ্রিল করোনা পরীক্ষা করার জন্য তার নমুনা ঢাকায় পাঠানো হলে ২০ এপ্রিল তার দেহে করোনা পজেটিভ বলে রিপোর্ট আসে।

গাজীপুর সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা মুহাম্মদ শাহীন জানান, সেদিন তার সংস্পর্শে যারা ছিলেন তাদের স্যাম্পল নেয়া হয়েছে। আর বেসরকারি ওই হাসপাতালটি লকডাউন করার জন্য মঙ্গলবার সকালে জেলা প্রশাসকের কাছে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে।

গাজীপুর সিভিল সার্জন কার্যালয়ে কর্মরত পরিসংখ্যানবিদ মো. সাইফুল ইসলাম জানান, সোমবারের নমুনায় তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল হাসপাতালের একজন চিকিৎসক ও সিনিয়র স্টাফ নার্স ও কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত করোনা নমুনা সংগ্রহকারী দুইজন ল্যাব, টেকনেশিয়ানের মধ্যে করোনা সংক্রমন পজেটিভ হয়েছে।

সোমবার পর্যন্ত গাজীপুরে চিকিৎসক ও নার্সসহ মোট ৫২জন স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।