গাজীপুরের পূবাইল থেকে ২০ লাখ টাকার পল্লি বিদ্যুতের তার উদ্ধার

আব্দুল আলীম, গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের পূবাইলের হায়দরাবাদে করোনা পরিস্থিতি চাল ডাল তেলের পর এবার আবুলের গোডাউনে মিলল পল্লী বিদ্যুতের ১৬ ড্রাম ইনটেক তার যাহার মূল্য প্রায় ২০ লাখ টাকা। এ ব্যাপারে নড়াইলের বিজ্ঞান নামক একজন তার কার্টারকে আটক করেছে পুলিশ। অন্য ৪-৫জন পালিয়ে যায়।

উদ্ধারকৃত বি আর বি ক্যাবল কারখানার তৈরি করা তারের সাইজ হল ১১ ড্রাম ডি-৩ ও ৫ড্রাম ডি-২ । শুক্রবার রাত ৮টা সময় স্থানীয় জনতা পূবাইল থানার হায়দরাবাদ জিড়াইতলী সাবের মার্কেটের পাশে তার কাটার বিকট শব্দ পেয়ে সন্দেহ হলে জনতা গোডাউনে প্রবেশ করে দেখে বিপুল পরিমাণ পল্লীবিদ্যুতের ইনটেক তার কেটে কেটে ছোট করছে।

এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে তড়িগরি করে গাজীপুর পল্লী বিদ্যুত সমিতি-১ এর এজিএম মামলা করলেন পূবাইল থানায়। স্থানীয়রা জানান-নির্জন এই গোডাউনে কী করতেন আবুল হোসেন আমরা জানতাম না। কিন্ত অল্প সময়ে অনেক অঢেল সম্পদের মালিক হওয়ায় আমাদের কিছুটা সন্দেহ হত। আজ বুঝতে পেরেছি ভদ্র বেশের আড়ালে উনাদের ব্যবসাটা কী? স্থানীয় ৩৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাহিনুল আলম মৃধা জানান- খবর পেয়ে ঘটনাস্থলের আবুলের গোডাঊনে গেলে আবুল ও জিয়া আমাকে দেখে পালিয়ে যায়।

তার বিরুদ্ধে নানা অপকর্মের অভিযোগ আগেও পেয়েছি। গাজীপুর পল্লী বিদ্যুত সমিতি-১ এর এজিএম জহিরুল ইসলাম জানান , ১৬ ড্রাম তার পল্লী বিদ্যুতের এতে কোন সন্দেহ নেই। আমরা থানায় মামলা করেছি। পূবাইল মেট্রো থানার ওসি নাজমুল হক ভূঁইয়া জানান–বড় ধরণের সিন্ডিকেট ছাড়া এত বড় পুকুর চুরি সম্ভব নয়।ইনটেক ১৬ ড্রাম তার পূবাইলের নির্জন গোডাউনে এলো কীভাবে তা খতিয়ে দেখছি তবে পল্লী বিদ্যুতের কারো সম্পৃক্ততা নেই সেটা উড়িয়ে দেয়া যায়না।