গাজীপুরের টঙ্গীতে ধর্ষণ মামলার আসামী গ্রেফতারে নিরব প্রশাসন

আব্দুল আলীম, গাজীপুর প্রতিনিধি: টঙ্গীতে ধর্ষণ মামলার আসামী গ্রেফতারে প্রশাসন নিরব ভূমিকা পালন করছে বলে অভিযোগ করেছেন মামলা বাদী। গত ১৬ জুন টঙ্গী পশ্চিম থানাধীন সফিউদ্দিন মালেক টাওয়ারে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, ভাড়াটিয়া সোহরাব হোসেনের বাসায় তার নিকট আত্মীয় আমান বাবর এক পোশাক শ্রমিককে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ধর্ষিতা টঙ্গী পশ্চিম থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। মামলা নং-০৭। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা টঙ্গী পশ্চিম থানার উপ-পরিদর্শক আশিকুর রহমান আশিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
নেত্রকোণা জেলার মদন থানার চানগাঁও গ্রামের সাহেদ আলী বাবরের ছেলে আমান বাবর ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে। এছাড়া এই মামলাকে ভিন্নখাতে প্রভাবিত করার জন্য বিভিন্ন মহলে জোর চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।
ধর্ষিতার মা প্রতিবেদককে জানান, ধর্ষণের এক মাস অতিবাহিত হলেও আসামীকে গ্রেফতার করতে গরিমশি করছে পুলিশ। আমি প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ করছি আসামীকে দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করছি। এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আশিকুল হক রুন্নাল্ড সাক্ষাৎকারে জানান, মামলার তদন্ত কাজ প্রক্রিয়াধীন। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ এমদাদুল হক জানান, আসামী গ্রেফতার চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।