গাছ পোড়ানোকে কেন্দ্র রাজিবপুরে সংঘর্ষ, আহত-৫

রফিকুল ইসলাম, রাজিবপুর (কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের রাজিবপুর উপজেলার জহির মন্ডল পাড়া গ্রামে ১২৭টি সুপারী গাছকে পোড়ানো এবং রাস্তা অবরোধকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনায় আহত হয়েছে ৫ ব্যক্তি। গুরুতর আহত অবস্থায়ত্ত ১ জনকে রাজিবপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এলাকাবাসী ও থানা সুত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে উক্ত সংঘর্ষ হয়েছে। এলাকাবাসী জানান, উক্ত গ্রামের চানমিয়া গং ও হবিবর গং এর মধ্যে গত ২ দিন আগে থেকেই বাক-বিতন্ড হয়ে আসছিল গাছ পোড়ানোকে কেন্দ্র করে। চানমিয়া অভিযোগ করে বলেন, তার পুকুর পাড়ের ১২৭টি সুপারী গাছ উক্ত হবিবর তার সন্তানদের নিয়ে পরিকল্পিত ভাবে গমের লাড়া পোড়াতে গিয়ে পুড়ে ফেলে। এ জন্য হবির নিকট বলতে গেলে সে, চান মিয়ার উপর চড়াও হয়। এক পর্যায়ে চান মিয়া ও তার ভাইদের সাথে ধস্তাধস্তি হয়েছে বুধবার। তখন থেকেই চানমিয়া গংদের বাড়ি থেকে বের হতে দেয়না এবং রাস্তা বন্ধ করে দেয় হবিসহ তার স্বজনরা। কারণ চান মিয়াদের চলাচলের একমাত্র রাস্তা হবির বাড়ির সামন দিয়ে। চান মিয়া গং বাড়ি থেকে বাহির হতে না পেরে স্থানীয় ২ সাংবাদিককে খবর দেয়। সাংবাদিকদ্বয় আমাদের বাড়ি থেকে বের হয়ে আসতে বলে। তখন বাড়ি থেকে বের হওয়ার সাথে সাথে হবি ও তার সন্ততান শাহীন, মাইদুল, মামুন, নস্করের ছেলে কবির সহ প্রায় ২০/২২জন সহ লাঠি-সোডা নিয়ে আমাদের উপর ঝাপিয়ে পড়ে। এতে চান মিয়া গ্রুপের আকিদুল (২৬), ফারম্নক(২৪), সোলায়মান বাদশা(২৭), চান মিয়া (৩৮) ও হায়দার (৪০) কে মারপিট করে জখম ও ১ জনের কান ফাটিয়ে ফেলে। পরে স্থানীয়রা তাদের রাজিবপুর হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেয়।

এ ব্যাপারে উভয় গ্রম্নপ রাজিবপুর থানায় অভিযোগ দিয়েছে বলে ওসি গোলাম মোর্শেদ তালুকদার জানিয়েছেন। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।