খুলনায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীতে অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ

আঃ রাজ্জাক শেখ,খুলনা প্রতিনিধি: আজ বুধবার অনুষ্ঠিত হয় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বাঙালির মুক্তির সনদ ৬-দফা’ বিষয়ক অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের পুরস্কার প্রদান ও সনদ বিতরণ অনুষ্ঠান। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় কমিটির আয়োজনে এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এমপি।

খুলনা জেলা ভিডিও কনফারেন্সিং-এর মাধ্যমে এই পুরস্কার বিতরণ ও সনদ প্রদান অনুষ্ঠানে সংযুক্ত হয়। সুযোগ্য জেলা প্রশাসক ও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, খুলনা মোহাম্মদ হেলাল হোসেন মহোদয়ের সভাপতিত্বে খুলনা সার্কিট হাউজের সম্মেলন কক্ষ থেকে সংযুক্ত ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, খুলনার বিভাগীয় কমিশনার ড. মুঃ আনোয়ার হোসেন হোসেন হাওলাদার, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার সরদার রকিবুল ইসলাম এবং খুলনার পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ।

সমগ্র বাংলাদেশ থেকে ৪৬,৬৭৫ জন সফল অংশগ্রহণকারীর মধ্যে ‘শতবর্ষে শত পুরস্কার’ এই থিমের ভিত্তিতে মোট ১০০ জন বিজয়ী নির্ধারণ করা হয়। খুলনা জেলা থেকে ৫ম স্থান অধিকার করেন রেলওয়ে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক খুকু রাণী ঘোষ এবং ৮৩তম স্থান অধিকার করে বিশেষ পুরস্কার লাভ করেন ১৯৭১-গণহত্যা নির্যাতন আর্কাইভ ও গবেষণা কেন্দ্রের মোঃ সাব্বির মাহমুদ।

পুরস্কার প্রাপ্ত দুইজন বক্তব্য প্রদানকারীর মধ্যে একজন হলেন খুলনার খুকু রাণী ঘোষ। জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, খুলনা মোহাম্মদ হেলাল হোসেন মহোদয় খুলনার দুইজন বিজয়ীর হাতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক স্বাক্ষরিত সনদ ও অর্থ-পুরস্কারের চেক তুলে দেন।

অনুষ্ঠানে খুলনা প্রান্ত থেকে আরো সংযুক্ত ছিলেন সিভিল সার্জন, খুলনা ডাঃ সুজাত আহমেদ, খুলনা মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, খুলনা জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সুজিত অধিকারী, সাবেক খুলনা মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার অধ্যাপক আলমগীর কবির, জেলা আনসার ও ভিডিপি কমান্ডার, খুলনা, খুলনা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এস এম নজরুল ইসলাম, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মোঃ মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ, খুলনার বিভিন্ন সরকারি অফিসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, জেলা প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাসহ প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।