খালিয়াজুরীতে মামলার ১৭দিনেও আসামী গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ

জাহাঙ্গীর আলম নেত্রকোণা প্রতিনিধিঃ নেত্রকোণার খালিয়াজুরী উপজেলার মেন্দিপুর ইউনিয়নের জগন্নাথপুর পশ্চিমপাড়া এলাকায় মরিচ ক্ষেত্রে ভেড়া দেওয়ার বিষয়কে কেন্দ্র করে মহিলাসহ ১৩জনকে আহত করে প্রতিপক্ষরা । এ ঘটনায় খালিয়াজুরী থানায় মামলা হলেও ১৭দিন পেরিয়ে গেলেও কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় শঙ্কা নিয়ে জীবন যাপন করছেন আহতরা। মঙ্গলবার(৫মে) সরেজমিনে এলাকাবাসী ও অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, জেলার খালিয়াজুরী উপজেলার মেন্দিপুর ইউনিয়নের জগন্নাথপুর পশ্চিমপাড়া এলাকায় ১৯এপ্রিল (রবিবার) দুপুরে মরিচ ক্ষেত্রে ভেড়া দেওয়ার বিষয়কে কেন্দ্র করে এরশাদুল আলম শাহিনের সাথে একই এলাকার জুয়েল সরকারের কথা কাটাকাটি হয়।

ঐদিন সন্ধ্যার দিকে দিকে এরশাদুল আলম শাহিনসহ তার দলবল মিলে দেশীয় অস্ত্র লোহার রড, রামদা, বল্লম ও লাঠি সোটা নিয়ে জুয়েল সরকারের বাড়িতে গিয়ে মহিলাসহ ১৩জনকে আহত করে। এ সময় গুরুতর আহত হয় সোলেমান সরকার(৩৫), পটল মিয়া(২৫), জসিম উদ্দিন সরকার(৩৫), হেলাম উদ্দিন(৫০), নার্গিস আক্তার(২৫), এরশাদ মুন্সি(২৪), মিলন মিয়া(৪৮)।

তখন ক্ষিপ্ত হয়ে এরশাদুল আলম শাহিন ও তার দলবল এলাকাবাসীর সামনে জুয়েল সরকারসহ আহত সকলকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। আর ভবিষ্যতে আমাদের কথা অনুযায়ী না চললে প্রাণনাশের হুমকিও দেন এরশাদুল আলম শাহিনসহ তার দলবল। খালিয়াজুরী থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ঘটনার পরদিন খালিয়াজুরী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেন জুয়েল সরকার। বিষয়টি তদন্ত করে ২০এপ্রিল (সোমবার) খালিয়াজুরী থানা মামলাটি এজাহার ভুক্ত করেন। মামলা নং-১০। খালিয়াজুরী থানার অফিসার ইনচার্জ এটিএম মাহমুদুল হকের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমরা আসামীদের গ্রেফতারের ব্যাপারে তৎপর আছি।