কুয়াকাটা পৌর আওয়ামী লীগের জাতীয় শোক দিবস পালন

আনোয়ার হোসেন আনু, কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন করেছে কুয়াকাটা পৌর আওয়ামী লীগ।

এ উপলক্ষে ১৫ আগস্ট ভোর ৬টায় জাতীয় ও শোক এবং দলীয় পতাকা উত্তোলন শেষে কুয়াকাটা পৌর মেয়র সহ দলীয় নেতাকর্মিরা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে বিনম শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এরপর সন্ধা সাড়ে ৭টায় কুয়াকাটা পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আঃ বারেক মোল্লার সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় সভায় বক্তব্য রাখেন পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মনির আহম্মেদ ভূইয়া, পৌর কাউন্সিলর তোফায়েল আহম্মেদ তপু, পৌর ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি ডাঃ আনোয়ার হোসেন,পৌর শ্রমীক লীগ সভাপতি মোঃ আব্বাস কাজী,পৌর যুবলীগের আহবায়ক মোঃ ইসাহাক শেখ,পৌর ছাত্রলীগ সভাপতি মোঃ মজিবর রহমান প্রমুখ।

আলোচনা সভায় পৌর আওয়ামী লীগ সহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের প্রায় পাচঁ শতাধিক নেতাকর্মিরা অংশগ্রহন করে। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অনন্ত মুখার্জী। শোক অনুষ্ঠানে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আঃ বারেক মোল্লা বলেন, ১৫ আগষ্টের ঘাতকরা বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের হত্যা করেই ক্ষান্ত হয়নি।

এ দেশ থেকে আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী লীগের রাজনীতিকে চিরতরে বিদায় দিতে ষড়যন্ত্রের জাল বুনতে থাকে। তারা জানতো বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশ নেত্রী শেখ হাসিনা বেচেঁ থাকলে তাদের মিশন সফল হবে না। তাই তারা শেখ হাসিনার উপর গ্রেনেড হামলা সহ হত্যা চেষ্টার নীল নকসা তৈরী করে। কিন্ত আল্লাহর অশেষ রহমতে তাদের এ মিশন ব্যর্থ হয়।

পৌর মেয়র বলেন, ষড়যন্ত্রকারীরা এখনও বসে নেই, জামাত বিএনপির এজেন্টদের আওয়ামী লীগের মধ্যে ঢুকিয়ে দিয়ে আওয়ামী লীগের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টি করছে। এদের ষড়যন্ত্রের ফাঁদে না পড়তে দলীয় নেতাকর্মিদের সজাগ থাকতে বলেন তিনি।

আলোচনা সভা শেষে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালো রাতে ঘাতকদের হাতে নিহত জাতির জনক ও তার পরিবারের সদস্যদের রুহের মাগফেরাত এবং দেশ ও জাতির কল্যান কামনায় দোয়া মোনাজাত করা হয়েছে। দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন মাও.জাহিদুল ইসলাম জাহিদ।