কুড়িগ্রামে বন্যার পানিতে ৩ লাখ মানুষ পানিবন্দী

মজাহারুল ইসলাম মিলন, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামে ধরলা ও ব্রহ্মপূত্র নদের পানি অস্বাভাবিক হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। ফলে বাড়ছে বানভাসীদের দুর্ভোগ।

কুড়িগ্রাম-ভূরুঙ্গামারী মহাসড়কের উপর দিয়ে বন্যার পানি প্রবাহিত হচ্ছে। এতে করে কুড়িগ্রাম-ভূরুঙ্গামারী যান চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। নতুন করে পানি বৃদ্ধির ফলে জেলার ৬০ ইউনিয়নের ৫২৫টি গ্রাম প্লাবিত হয়ে ৩ লাখ মানুষ পানিবন্দী হয়ে পরেছে।

নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হওয়ায় বানভাসীরা বাঁধ, উঁচু রাস্তাসহ বিভিন্ন স্থানে পরিবার এবং গবাদি পশু নিয়ে আশ্রয় নিয়েছে। বানভাসীদের রাতভর মুসল ধারে বৃষ্টি ও বাতাসে তাদের চরম দুর্ভোগ আকার ধরণ করেছে। দুর্গতদের মধ্যে ত্রাণ না পাওয়ার অভিযোগ রয়েছে। বন্যা কবলিতদের মাঝে শুকনা খবার,নিরাপদ পানিসহ গো খাদ্যের সংকট দেখা দেবার পাশাপাশি স্যানিটেশন ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়েছে।

জেলা প্রশাসক রেজাউল করিম জানিয়েছেন, পানিবন্দী মানুষকে উদ্ধারে প্রয়োজনীয় নৌকার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়াও জেলায় ৪৩৮টি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তত রাখা হয়েছে। দুর্গতদের জন্য ৪০০ মে. টন চাল, ১১ লাখ টাকা এবং ৩ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার বিতরণ চলছে।