কুড়িগ্রামে তিস্তা নদীর ভাঙন রোধে গাবুরহেলান স্পার রক্ষার দাবীতে মানববন্ধন

মজাহারুল ইসলাম মিলন, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:  কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার বিদ্যানন্দ ইউনিয়নে তিস্তা নদীের ভাঙন রোধে বুড়িরহাট ও গাবুর হেলান স্পার ভাঙন রোধে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। শুক্রবার সকালে ভাঙন কবলিত গাবুর হেলান স্পারে ঘন্টাখানিক মানববন্ধন করা হয়।

মানববন্ধনে এলাকাবাসী প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করে, ভাঙন কবলিত সন্তানদের রক্ষার জন্য এই এলাকায় নদী খনন ও স্থায়ী বাঁধ নির্মাণের দাবি জানান। এসময় এলাকাবাসীর পক্ষে বক্তব্য রাখেন সমাজকর্মী হক্কানী মিয়া, ইঞ্জিনিয়ার রেজওয়ান বাদশা, মোয়াজ্জেম বদিয়ত আলী, দিনমজুর মন্টু মিয়া, আনিছুর রহমান, আলেমা বেগম প্রমূখ। এলাকাবাসী জানান, ১৯৯৮ সালে ৩৫০ মিটার দীর্ঘ স্পারটি তিস্তার ভাঙন রোধে নির্মাণ করা হয়। গত ৮দিন ধরে এখানে ভাঙন চলছে।

ভাঙন রোধে পানি উন্নয়ন বোর্ড কাজ করলেও তারা গাফিলতি করছে বলে অভিযোগ তোলা হয়। এলাকাবাসী স্বেচ্ছাশ্রমে বালু সংগ্রহ করে বস্তায় ভরালেও পানি উন্নয়ন বোর্ডের লোকজন দুর্ভোগ কবলিত এলাকায় এসে খোঁজখবর নিচ্ছেন না। তারা বস্তাগুলো শেলাই করে স্পারের মাথায় ফেলার ব্যবস্থা করছে না। ভাঙন রোধে স্থায়ী কাজের দাবিতে মানববন্ধন আয়োজন করে এলাকাবাসী। স্থানীয়রা জানান, ভাঙন রোধ করা না গেলে গাবুর হেলান মসজিদ,

গাবুর হেলান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাজাপাড়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসা, সোলাগাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, তৈয়ব খা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাঘব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মহাসিনিয়া দাখিল মাদ্রাসাসহ বেশ কয়েকটি মসজিদ. মন্দির, ঈদগাহ মাঠ, কবরস্থান, রাইচমিল এবং শত শত বাড়িঘর নদীগর্ভে চলে যাবে।