কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে গৃহবধুকে শ্বাসরোধ করে হত্যা

মজাহারুল ইসলাম মিলন, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে যৌতুকের কারনে এক গৃহবধুকক শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে স্বামী ও শ্বশুড় বাড়ির লোকজন।

এলাকাবাসী জানায় নাগেশ্বরী উপজেলার রামখানা ইউনিয়নের আজমতা মাদারের কুটি গ্রামের আবুল কাশেমের পুত্র দুলাল মিয়া (৩৫)র সাথে একই গ্রামের শের আলী মিয়ার একমাত্র কন্যা শারমিন আক্তার (১৮) এর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে দুলাল ও তার বাড়ির লোকজন ৬৫হাজার টাকা যৌতুক দাবী করে বিভিন্ন সময়ে নির্যাতন করত।

এদিকে আজ শুক্রবার যৌতুকের কারনে দুলাল মিয়া ও তার বাড়ির লোকজন শারমিনকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে লাশ ফাসীতে ঝুলিয়ে রেখে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচারনা চালায়।

এদিকে বিষয়টি এলাকাবাসী জানতে পেয়ে বিক্ষুব্ধ হয়ে বাড়ী ঘেরাও করে ঘাতক স্বামী দুলাল মিয়া, শ্বাশুড়ি খাদিজা বেগম(৫০), ননদ ফাতেমা বেওয়া(২৮), কুলসুম বেগম(২০) ও দেবর হাফিজুর রহমান(২২) কে আটক করলে তারা হত্যার কথা স্বীকার করলে থানায় খবর দেয়। পরে নাগেশ্বরী থানার অফিসার ইনচার্জ রওশন আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে নিহতের লাশ ও আটককৃত আসামীদের থানায় নিয়ে যায়। এ বিষয়ে নাগেশ্বরী থানার অফিসার ইনচার্জ রওশন আলম জানান,নিহতের লাশ উদ্ধারসহ আসামীদের আটক করে থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।