কুড়িগ্রামের উলিপুরে নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজ ৪ জনের মরদেহ উদ্ধার

মজাহারুল ইসলাম, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:  কুড়িগ্রামের উলিপুরে ছেলে পক্ষের বাড়িতে বৌভাত শেষে ফেরার পথে ধরলা নদীতে নৌকা ডুবে নিখোঁজ কনের বাবাসহ চারজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। বৃহস্পতিবার (২৮ মে) সকাল সাড়ে আটটা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত সাড়ে তিন ঘন্টা অভিযান চালিয়ে নিখোঁজ চারজনের মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দল।

এসময় নদী তীরে শত শত উৎসুক জনতা ভীর জমায়। একটি করে মরদেহ উদ্ধার করা হয়; আর স্বজনদের কান্নায় ভারী হয়ে ওঠে আকাশ বাতাস। পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করতে কুড়িগ্রাম-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও ওই উপজেলার সন্তান অধ্যাপক এম এ মতিন এমপিসহ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম হোসেন মন্টু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল কাদেরসহ কমর্তকর্তারা ঘটনাস্থলে ছুটে যান।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার (২৭ মে) বিকেল ৫টার দিকে উলিপুর উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের চর কলাকাটা নামানিরচর গ্রামে মেয়ে পক্ষের প্রায় ৪৫/৫০ জন কনেযাত্রী বরের বাড়িতে বৌভাত খাওয়ার পর ফিরছিলেন। শ্যালো চালিত নৌকায় ফেরার পথে ধরলা নদীর মাঝপথে নৌকা ডুবে যায়।

কনে যাত্রী ও মেয়ের মামাতো ভাই আশরাফুল জানান, নৌকা ছাড়ার সময় নদীর মাঝপথে হঠাৎ ঝড়োবাতাস ও বৃষ্টি নামলে লোকজন নৌকার পলিথিন মাথায় দেয়ার সময় টানাটানির ফলে নৌকা কাত হয়ে ডুবে যায়। এসময় অনেকে সাঁতার দিয়ে তীরে উঠলেও কনের বাবা নুর ইসলামসহ চারজন নিখোঁজ হয়।

এসময় যাদের উদ্ধার করা হয় তারা হলেন- উলিপুর উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের যমুনা রায় গ্রামের মৃত: কেরামত উল্লার ছেলে নুর ইসলাম নুরু, তৈয়ব আলীর স্ত্রী আমেনা বেগম, নুর ইসলাম ও কামরুজ্জামান। মজাহারুল ইসলাম কুড়িগ্রাম প্রতিনিতি