কুমিল্লায় করোনা উপসর্গ নিয়ে শহরে ৩ জন ও দেবিদ্বারে ১ জনের মৃত্যু

এম এ বাশার, কুমিল্লা উত্তর জেলা প্রতিনিধিঃ  কুমিল্লায় ৯ ই জুন( মঙ্গলবার) মহামারি করোনা উপসর্গ নিয়ে শহরে ৩ জন ও দেবিদ্বারে ১ জনের মৃত্যু। জেলার দেবিদ্বার উপজেলা ১০নং দক্ষিণ গুনাইঘরে বল্লুভপুর গ্রামের নরুল ইসলামের মেয়ে সালেহা আক্তার (২৫) ৯ ই জুন মঙ্গলবার সকাল ৯ টায় করোনা উপর্সগ নিয়ে মৃত্যুবরণ করেন। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গ্রামের নরুল ইসলামের মেয়ে সালেহা আক্তার বেশ কিছু দিন পূর্বে চট্টগ্রামের ইপিজেডে চাকুরী করতো ।

সে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ সর্দি ও জ্বর নিয়ে সে বাড়ি ফিরে আসে। মঙ্গলবার সকালে করোনা উপসর্গ নিয়ে তার নিজ বাবার বাড়ীতে মৃত্যুবরণ করেন। করোনায় মৃত্যু সালেহ আক্তারের মরদেহ কেউ দাফন কাফনে এগিয়ে আসে নি, খবর পেয়ে মানবিক কারণে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হাকিম খানের নেতৃত্বে বিকেলে কবর ও জানাজা দাফনের কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আহমেদ কবীর জানান, বল্লভপুর গ্রামে একজনের মৃত্যুর খবর শুনেছি । তবে করোনায় শনাক্ত কিনা তা এখন বলা যাচ্ছে না। একই দিন সকালে কুমিল্লা নগরীর ১৫ নং ওয়ার্ডের বজ্রপুর সার্কুলার রোডের বাসিন্দা মোঃ ইলিয়াস মিয়া করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন।

এ ছাড়া করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন কুমিল্লা সদরের ফরিদা বেগম (৬৫) ও কুমিল্লার পানিপাড়া এলাকার বাসিন্দা জহিরুল ইসলাম (৪২)। কুমিল্লা মহানগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ মোল্লা টিপুর মানবিক সংগঠন বিবেগ এই মরদেহ কবর জানাজা ও দাফন সম্পুর্ণ করেন। এটা ছিল বিবেকের দশম দাফন কার্যক্রম