কুমিল্লার মুরাদনগরে একই পরিবারের ৯ জন করোনায় আক্রান্ত

এম এ বাশার, কুমিল্লা( উত্তর) জেলা প্রতিনিধি: কুমিল্লার মুরাদনগরে একদিনে সর্বোচ্চ ৭ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ওই ৭ জনই এক পরিবারের সদস্য বলে জানিয়েছেন, মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মোহাম্মদ নাজমুল আলম।
তিনি আরো বলেন , গত ৫ মে উপজেলার নবীপুর পূর্ব ইউনিয়নের বাখরনগর গ্রামের এক পরিবারের ২ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়। যার ফলে পরদিন প্রশাসন বাড়িটিকে লকডাউন করে দিয়ে পরিবারের বাকি ৭ জন সদস্যের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠায়। গত ৬ মে পরীক্ষার জন্য মুরাদনগর থেকে ঢাকায় প্রেরণকৃত মোট ২১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ওই পরিবারটির ৭ জনেরই করোনা পজিটিভ ফলাফল আসে। যা মুরাদনগর উপজেলায় একদিনে সর্বোচ্চ করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।
এ নিয়ে মুরাদনগর উপজেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৮জনের। এর আগে মুরাদনগর উপজেলার রামচন্দ্রপুর উত্তর ইউনিয়নের কাঠালিয়াকান্দা গ্রামে এক পরিবারের ৫ জন, দারোরা ইউনিয়নের কাজিয়াতল গ্রামের একজন, রামচন্দ্রপুর উত্তর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য একজন, পাহাড়পুর ইউনিয়নের প্রান্তি গ্রামের একজন ও সুরানন্দি গ্রামের একজন। আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে কাঠালিয়াকান্দা গ্রামের এক পরিবারের ৫ জন থেকে ২য় দফায় দুই জনের নেগেটিভ ফলাফল আসেছে। অপরদিকে দারোরা ইউনিয়নের কাজিয়াতল গ্রামের একজন করোনা রোগী পালিয়ে গেলেও বাকি সবাই বর্তমানে হোম আইসোলেশনে রয়েছে।