কুমিল্লার দেবিদ্বারে সেতু ভেঙ্গে ট্রাক্টর খাদে, চালক নিহত

এম এ বাশার, কুমিল্লা উত্তর প্রতিনিধি: কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলায় সেতু ভেঙ্গে বালু বোঝাই একটি ট্রাক্টর খাদে পড়ে যায়। ফায়ার সার্ভিসের টিম এসে লাশ উদ্ধার করে, ট্রাক্টর চালক নিহত।

৭ ই জুন (রবিবার) সকাল ১০ টায় উপজেলার গুনাইঘর উত্তর ইউনিয়নের গুনাইঘর বাজার থেকে বাঙ্গুরী যাওয়ার পথে চান্দার বাড়ি সংলগ্নে এ ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ও মুরাদনগরের ফায়ার সার্ভিস এর একটি টিম লাশ উদ্ধার করেছে বলে জানান দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ মো. জহিরুল আনোয়ার।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গুনাইঘর বাজার থেকে বাঙ্গুরী গ্রামে যাওয়ার পথে চান্দার বাড়ির সংলগ্নে এ সেতুটি দীর্ঘদিন ধরে জরাজীর্ণ ও ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় ভারী যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। স্থানীয়রা সেতুটির ওপরে বাঁশের বেঁড়া দিয়ে বিপদ সংকেত হিসেবে লাল কাপড় লাগিয়ে ছিলো। এরপরও কিছু চালক সেতুর উপরে থাকা লাল কাপড়ের বাঁশের বেঁড়া সরিয়ে মারাত্মক ঝুঁকি নিয়ে বিভিন্ন যানবাহনসহ ভারী যানবাহন চলাচল করছিলো।

৭ ই জুন সকালে বালু বোঝাই ওই ট্রাক্টরটি সেতুটির উপরে উঠা মাত্রই ট্রাক্টরের সামনের অংশটি সেতু ভেঙে নিচের দিকে পরে যায়। এতে ট্রাক্টরের হেলপাররা লাফিয়ে বাঁচতে পারলেও বাচতে পারে নাই চালক, ভাঙা সেতু ও ট্রাক্টরের নিচে চাপা পড়ে চালক রাসেল। এতে ঘটনাস্থলেই রাসেল নিহত হন।

ইউপি চেয়ারম্যান মো. খোরশেদ আলম সরকার জানান, সেতুটি মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ ছিলো। আমি নিজেই সেতুটির চারপাশে বিপদ সংকেত হিসেবে বাঁশের বেড়া দিয়েছি। তারপরও চালকরা এ বেড়া সরিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ সেতু দিয়ে চলাচল করছিলো।

দেবিদ্বার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাকিব হাসান জানান, সেতুটি ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করার পরও কিছু চালক অবৈধভাবে মালামাল পরিবহন করায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। সেতুটি পুনরায় সংস্কার কাজের জন্য প্রক্রিয়া চলছিল।