কিশোর গ্যাং দমনে চাঁদপুর মডেল থানা পুলিশের অভিযান অব্যাহত সন্ধ্যার পর কোন শিক্ষার্থী ঘরের বাহিরে থাকতে পারবে না

 মোহাম্মদ বিপ্লব সরকার, চাঁদপুর প্রতিনিধি: চাঁদপুর শহরের কিশোর গ্যাং দমনে চাঁদপুর সদর মডেল থানার অভিযান অব্যাহত রয়েছে। গত ৬ নভেম্বর থেকে এ অভিযান শুরু হয়েছে। চাঁদপুর মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ নাসিম উদ্দিনের নেতৃত্বে প্রতিদিন সন্ধ্যার পর থেকে শহরের বিভিন্ন পাড়া মহল্লায় অভিযান পরিচালিত হয়ে আসছে। গত ৬ ও ৭ নভেম্বর ২ দিনে ১২ জন কিশোরকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া ১২ নভেম্বর পর্যন্ত মোট ৫৯ জন কিশোরকে আটক করা হয়।
মোঃ নাসিম উদ্দিন জানান, চাঁদপুর শহরে ইদানিং কিশোরদের গ্যাং তৈরি হয়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটছে। যার ফলে এই কিশোর গ্যাং দমনে আমরা চাঁদপুর মডেল থানার মাধ্যমে অভিযান পরিচালনা করে আসছি। এসব কিশোররাই স্কুল পড়–য়া শিক্ষার্থী। আমরা প্রতিনিয়ত সন্ধ্যার পর থেকে যে সমস্ত শিক্ষার্থীদেরকে ঘরের বাইরে অর্থাৎ রাস্তায় দেখতে পাব তাদেরকে আটক করে থানায় আসব। অভিভাবকরা তাদের সন্তানদের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে। আপনাদের সন্তানরা যাতে সন্ধ্যার পরে শিক্ষার্থী হিসেবে ঘরের বাইরে কোনভাবেই যেন আসতে না পারে সেদিকে আপনারাই খেয়াল রাখবেন। অভিভাবকরা যদি তাদের স্কুল ও কলেজ পড়–য়া সন্তানরা সন্ধ্যার পর ঘরে পড়ার টেবিলে থাকবে। কোন জরুরি কাজ ছাড়া তারা যেন ঘর থেকে বের হয়ে রাস্তায় না আসতে পারে। চাঁদপুর শহরে কিশোর গ্যাং দমনে মডেল থানা পুলিশ যেভাবে কাজ করছে এতে করে এ কোমলমতি শিক্ষার্থীদেরকে সন্ধ্যায় ঘরে বসে পড়ালেখা করার জন্যে এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।
আমরা এ পর্যন্ত যে সমস্ত কিশোরদেরকে আটক করেছি ওই সব কিশোরদের মধ্য থেকে কয়েকজনকে আদালতে কিশোর অপরাধী হিসেবে পাঠিয়েছি। বাকীদেরকে তাদের অভিভাবকদেরকে থানায় ডেকে এনে মুসলেকার মাধ্যমে জিম্মায় দিয়েছি। এটা শুধু করা হয়েছে এসমস্ত শিক্ষার্থীদেরকে সঠিক পথে ধাবিত করার জন্য। আমাদের এই অভিযান অব্যাহত রয়েছে। শহরের বিভিন্ন পাড়া মহল্লায় দেখা যায় স্থানীয় কিশোররা পড়ালেখা না করে আড্ডায় মেতে উঠে। তাদেরকে আড্ডা থেকে পড়ার টেবিলে বসানোর জন্যই আমাদের এই অভিযান। অভিযানে আরও উপস্থিত থাকেন পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত হারুনুর রশিদ, ইনটেলিজেন্ট অফিসার মনির আহমেদ সহ পুলিশ সদস্যরা।