কলমাকান্দায় অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

জাহাঙ্গীর আলম, নেত্রকোণা প্রতিনিধিঃ নেত্রকোণা জেলার কলমাকান্দা উপজেলায় বসত ঘরের আড়ের সাথে গলায় ওড়না পেঁচানো চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ শান্তা আক্তার (২০) এর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে কলমাকান্দা থানা পুলিশ।

আজ বুধবার (১২ আগস্ট) সকালে উপজেলার খারনৈ ইউনিয়নের বামনগাঁও গ্রামে গৃহবধূ শান্তা আক্তারের স্বামীর বসত ঘর থেকে এ মরদেহ উদ্ধার করা হয় । মৃত শান্তার স্বামী একই গ্রামের মো. আসাদ উল্লাহ’র ছেলে জিয়াউল ইললাম (২৫)।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, গৃহবধূর স্বামী জিয়া সকাল সাড়ে ৬ টার দিকে আদালতে হাজিরা দেবে বলে ঘর থেকে বের হয়ে যায়। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে নিহত গৃহবধূর চাচাতো দেবর জাহিদ (৯) ঘরে উঁকি দিয়ে দেখে ঘরের আড়ের সাথে গলায় ওড়না পেঁচানো তার ভাবী শান্তার ঝুলন্ত মরদেহ।

পরে বিষয়টি পরিবারের লোকজনকে জানালে তারা পুলিশকে খবর দেয়। পরে মরদেহটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। মৃতের মা শেফালী আক্তার বলেন, তার মেয়ে চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলো। বিয়ের পর থেকে তার মেয়েকে নানাভাবে মানসিক অত্যাচার করতো বলে তিনি জানান।

কলমাকান্দা থানার ওসি মো. মাজহারুল করিম বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা যাচ্ছে এ ঘটনাটি আত্মহত্যা হতে পারে। তবে ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর প্রকৃত তথ্য জানা যাবে। মরদেহটি আজ বুধবার দুপুরে ময়নতদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।